আগ্রাসী ওপেনিং জুটির তালিকায় সেরা পাঁচে ৩ বাংলাদেশী

রঙ্গিন পোশাকের ক্রিকেটে ওপেনাদের ভূমিকা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সাদা পোশাকেও তাই। তবে রঙ্গিন পোশাকে যেহেতু ওভার সীমিত, তাই দ্রুত রান তোলার তাড়া থাকে। ওপেনাররা ভিতটা পাকা করে দিলে পরের ব্যাটসম্যানদের সমস্যা হয় না। বাংলাদেশে দীর্ঘদিন ধরে ওপেনিং পজিশনের একপ্রান্ত আগলে রেখেছেন তামিম ইকবাল।

তার সঙ্গী হিসেবে কখনও সৌম্য, কখনো লিটন আবার কখনো ইমরুল-বিজয়-সাদমানকে দেখা যায়। তবে তামিম-লিটন আর তামিম-সৌম্য জুটিই অনন্য। ২০১৮ সাল থেকে ওপেনিং জুটির দ্রুত রান তোলার একটি পরিসংখ্যান বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, আগ্রাসী ওপেনিং জুটির তালিকায় যথাক্রমে তিন ও চারে আছে তামিম-লিটন এবং তামিম-সৌম্য জুটি।

এই তালিকার শীর্ষে আছেন ইংল্যান্ডের দুই ওপেনার জনি বেয়ারস্টো-জেসন রয় জুটি। দুইয়ে আছে নিউজিল্যান্ডের বিধ্বংসী ওপেনার মার্টিন গাপটিল এবং কলিন মুনরোর জুটি। বাংলাদেশের দুটি জুটির পর সময়ের অন্যতম ভয়ংকর দুই ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নার ও অ্যারন ফিঞ্চের জুটি আছে তালিকার পাঁচে।

চলতি বছরের শুরুতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২৯২ রানের অবিশ্বাস্য এক ওপেনিং জুটি গড়েছেন তামিম-লিটন। ব্যাট হাতে দুজনেই সেদিন টর্নেডো বইয়ে দেন। বলা যায় জিম্বাবুয়ের বলারদের নাকের পানি-চোখের পানি এক করে ছেড়েছিলেন তারা।

বাংলাদেশের ওপেনিং পজিশনে তামিমের দায়িত্ব থাকে একপ্রান্ত আগলে রেখে অ্যাংকরিং করা। অন্যদিকে লিটন-সৌম্যর দায়িত্ব থাকে প্রতিপক্ষের ওপর আক্রমণ করা। দ্রুত রান তোলার ক্ষেত্রে তামিম-লিটন জুটি ওভার প্রতি ৫.৯৩ রেটে রান তুলেছেন। ইন্যদিকে তামিম-সৌম্য জুটি তুলেছে ৫.৬৯ রান। শীর্ষে থাকা ইংলিশ ওপেনারদ্বয় ওভারপ্রতি ৬.৯৪ রান করে তোলেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*