আফগানিস্তানে ১৫৩ গণমাধ্যম বন্ধ, যা বলল তালেবান!

গত ১৫ আগস্ট আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেয় তালেবান। এরপর থেকেই দেশের বিভিন্ন প্রদেশে অসংখ্য গণমাধ্যম বন্ধ হয়ে যায়। আফগানিস্তানে মুক্ত গণমাধ্যমকে সমর্থনকারী একটি সংস্থা এ তথ্য জানায়। খবর টোলো নিউজের।

ওই সংস্থাটি জানায়, সাবেক সরকারের পত’নের পর থেকে আ’ফগানিস্তানের ২০ প্রদেশে ১৫৩টি গণমাধ্যমের কার্যক্রম বন্ধ হয়ে গেছে। এ গণমাধ্যমগুলোর মধ্যে রয়েছে— রেডিও, প্রিন্ট ও টেলিভিশন চ্যানেল। এগুলো বন্ধের কারণগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো— আর্থিক ও নানা বিধিনিষেধ।

এ বিষয়ে তা’লেবা’নের অন্তর্বর্তী সরকারের তথ্য ও সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে জানান, আফগানিস্তানের গণমাধ্যমগুলোকে কার্যক্রম পরিচালনার অনুমতি দেওয়া হবে। জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ বলেন, গণমাধ্যম অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং আমরা গণমাধ্যমকে সমর্থন করি। প্রদেশগুলোতে কিছু সমস্যা দেখা দিয়েছে এগুলোর সমাধান করা হচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে তালে’বানের অন্তর্বর্তী সরকারের এ উপমন্ত্রী দেশের অর্থনৈতিক পরিস্থিতি, নারী শিক্ষা এবং কাবুল বিমানবন্দরের পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলেন। দীর্ঘ ২০ বছর পর যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করে নেওয়ার মধ্যে ১৫ আগস্ট কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেয় তা’লেবান। এরপর ৩৩ সদস্যের অন্তর্বর্তী সরকার গঠন করে গো’ষ্ঠীটি। ২১ সেপ্টেম্বর আরও বেশি কিছু মন্ত্রী-উপমন্ত্রীর নাম ঘোষণা করেছে আফগানিস্তানের শা’সকগো’ষ্ঠী।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.