আমাদের সংসারটা ভাঙার পথে, ডিভোর্সটাই বাকি: সুবাহ

সম্প্রতি মডেল ও অভিনেত্রী সুবাহ শাহ হুমায়রাকে বিয়ে করেছেন কণ্ঠশিল্পী ইলিয়াস হোসেন। তাদের বিয়ের কথা প্রকাশ্যে এলে দ্বিতীয় স্ত্রীকে ডিভোর্স না দিয়েই সুবাহকে বিয়ে করার অভিযোগ করেন গায়কের দ্বিতীয় স্ত্রী মডেল কারিন নাজ। এ নিয়ে আলোচনা-সমালোচনার মধ্যেই মুখ খুলেছেন সুবাহ শাহ হুমায়রা।

তিনি বলেছেন, ‘আমাদের সংসারটা একদম ভাঙার পথে, শুধু ডিভোর্সটাই বাকি আছে।মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) দাম্পত্য কলহ নিয়ে ফেসবুক লাইভে দীর্ঘ বক্তব্য দেন সুবাহ। কথার শুরুতে এ চিত্রনায়িকা বলেন, ‘আমি লাইভে আসতে বাধ্য হলাম। আমাদের সংসারটা একদম ভাঙার পথে।

শুধু ডিভোর্সটাই বাকি আছে। অথচ কয়েকদিন আগে আমাদের বিয়ে হয়েছে। এসব হচ্ছে শুধু একটা মেয়ের জন্য। বিয়ের আগেও তাকে বলেছি যদি তোমার সমস্যা থাকে তবে তুমি বলতে পারো। তখন কারিন বলেছে, তার কোনো সমস্যা নাই। এসব কথপোকথনের রেকর্ডও আমার কাছে আছে।’

ইলিয়াসের সাথে ঝগড়ার সময় ফেসবুক লাইভে আসার কারণ ব্যাখ্যা করে সুবাহ বলেন, ‘যখন ইলিয়াসের সাথে আমার ঝগড়া চলছিল, তখন রাগের মাথায় লাইভে আসছিলাম। আমি এটা জানাতে চেয়েছি যে, আমরা কতটা অশান্তির মধ্যে আছি।

এর আগে কারিন সম্পর্কে সুবাহ বলেছিলেন, ‘আমি তো জানি ইলিয়াসের সাথে কারিনই লিভ টুগেদার করেছিল। কারণ হলো ওই বিয়ের কোনো লিগ্যাল কাবিননামাই নেই!!! হাহাহা। ওই মেয়ে থাকে বিদেশে তিন বছর ধরে বাংলাদেশে আসে না শুধু মোবাইলে মোবাইলে কথা বললে কি সংসার হয়নাকি?

ওই মেয়ে কারিন এবং তার মায়ের অনেক অবৈধ সম্পর্ক আছে বিদেশে এবং বাংলাদেশ এটাও আমি জানি। সে মেন্টালিভাবে পেরা দিতো অলওয়েজ। এটা ইলিয়াসের সার্কেলের সবাই জানে যে ওরা ম্যারেড লাইফে কখনো হ্যাপি ছিল না।

আর ওই মেয়ে তিন বছর ধরে বাংলাদেশে আসে না ফিজিক্যাল রিলেশনও ছিল না। আমি তখন ইলিয়াসের ভালো বন্ধু ছিলাম। পরে আমাদের দুজনের ভালোলাগা থেকেই বিয়ের ডিসিশন নিয়ে আমরা ফ্যামিলিগতভাবে সবাইকে জানিয়ে যা করার করেছি। আমরা তো পাপ কিছু করিনি।’

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.