আম্পানের ক্ষত না শুকাতেই আসছে নতুন ঘূর্ণিঝড়

কিছুদিন আগেই ভারতের পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশ দিয়ে বয়ে গেছে শক্তিশালী সুপার সাইক্লোন আম্পান। এবার আম্পানের ক্ষত না শুকাতেই আসছে আরেক ঘূর্ণিঝড়। যদিও ঝড়টির উৎপত্তি হবে আরব সাগরে। ভারতের আবহাওয়া অধিদপ্তর দেশটির পশ্চিমাঞ্চলীয় দুই রাজ্য গুজরাট ও মহারাষ্ট্রকে এ বিষয়ে সতর্কবার্তা দিয়েছে।

রোববার (৩১ মে) ভারতের কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে দুই রাজ্যের উপকূলে আছড়ে পড়তে পারে এই ঘূর্ণিঝড়টি। এটি এখন আরব সাগরে শক্তিশালী হচ্ছে।

তবে সতর্কবার্তা পেয়ে পশ্চিমবঙ্গ ও ওড়িশায় আম্পানের তাণ্ডবের অভিজ্ঞতা বিবেচনায় নিয়ে ওই দুই রাজ্য আগাম প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে। ইতিমধ্যে রাজ্য দুটির মৎস্যজীবীদের ৫ জুন পর্যন্ত গভীর সমুদ্রে মাছ ধরতে যেতে নিষেধ করেছে কর্তৃপক্ষ।

দপ্তরের সাইক্লোন বিভাগের প্রধান সুনীতা দেবী জানিয়েছেন, আরব সাগর এলাকায় দক্ষিণ-পূর্ব এবং সংলগ্ন পূর্ব-মধ্য অঞ্চলে একটি ঝড়ের সূত্রপাত হয়েছে। আগামী ২৪ ঘণ্টায় তা নিম্নচাপে পরিণত হবে। এরপর আরও ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তা ‘সাইক্লোনিক স্টর্ম’ বা ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে।

সুনীতা দেবী বলেন, ‘নিম্নচাপে পরিণত হওয়ার পর উত্তরের দিকে এগিয়ে যেতে পারে ঘূর্ণিঝড়টি। আগামী ৩ জুন তা আছড়ে পড়তে পারে মহারাষ্ট্র এবং গুজরাটের উপকূলে।’ ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে দুই রাজ্যে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর।

দেশটির কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, মহারাষ্ট্রের দক্ষিণ উপকূলীয় এলাকায় ২ থেকে ৪ জুন, উত্তর উপকূলে ২ থেকে ৩ জুন এবং গুজরাট, দমন-দিউ, দাদরা ও নগর হাভেলিতে ৩ থেকে ৫ জুন ভারী থেকে অতিভারী বর্ষণ হবে। এর ফলে সমুদ্র উত্তাল হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *