আর্জেন্টিনা নাকি বার্সেলোনা, সিদ্ধান্ত নিতে হবে মেসিকেই

দলবদল নিয়ে নানা টানাপোড়েনের পর বার্সালোনাতেই থেকে যান বিশ্ব ফুটবলের অন্যতম মহাতারকা লিওনেল মেসি। বার্সায় ফিরেই একটি প্রীতি ম্যাচে জোড়া গোল করে নিজের জাদু দেখান মেসি। তবে এবার পড়েছেন অন্য জটিলতায়। জাতীয় দল ও ক্লাব বার্সেলোনার ম্যাচের শিডিউল নিয়ে।

নিষেধাজ্ঞা থেকে মুক্তি পাওয়া লিওনেল মেসিকে নিয়ে কাতার বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের দল ঘোষণা করেছে আর্জেন্টিনা। অক্টোবরে ইকুয়েডর ও বলিভিয়ার মুখোমুখি হবে আলবিসেলেস্তেরা। একই সময়ে ছয়বারের ব্যালন ডি’অর জয়ীর ক্লাব বার্সেলোনারও ম্যাচ চলবে। তাই মেসিকেই বেছে নিতে হবে কোন জার্সিতে খেলবেন তিনি- আর্জেন্টিনার নাকি বার্সেলোনার?

আগামী ৮ অক্টোবর ইকুয়েডরের বিপক্ষে আর্জেন্টিনার প্রথম ম্যাচ। পাঁচ দিন পর বলিভিয়ার মুখোমুখি লড়বে তারা। মেসি যদি জাতীয় দলের হয়ে খেলতে দেশে যান, তাহলে বার্সেলোনায় ফিরে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।

এজন্য আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড লা লিগায় খেলতে পারবেন না আলাভেস ও গেতাফের বিপক্ষে, এমনকি রিয়াল মাদ্রিদের ম্যাচেও। কারণ ক্লাসিকোর (২৫ অক্টোবর) ১২ দিন আগে বলিভিয়ার ম্যাচ। কিন্তু কোয়ারেন্টাইন দুই সপ্তাহের।

মেসি কী করবেন তা এখনও অজানা। তবে বার্সেলোনা এ নিয়ে ফিফার কাছে তাদের উদ্বেগ প্রকাশ করেছে। অন্য ইউরোপিয়ান ক্লাবগুলোরও একই অবস্থা। একটা সমাধানে পৌঁছাতে ফিফার সঙ্গে দক্ষিণ আমেরিকান ফুটবল সংস্থা কনমেবল বৈঠকের কথা ভাবছে।

প্রাথমিক সূচি অনুযায়ী বাছাইয়ের এই দুটি ম্যাচ হওয়ার কথা ছিল গত মার্চে। তবে করোনাভাইরাসের কারণে দুই দফায় সূচি স্থগিত হয়। গত বৃহস্পতিবার ফিফা জানায়, পরিবর্তীত পরিকল্পনা অনুযায়ী অক্টোবরে মাঠে গড়াবে দক্ষিণ আমেরিকার বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব। এরপরই দল ঘোষণা করল আর্জেন্টিনা।

লিওনেল স্কালোনির এই ৩০ জনের দলে জায়গা হয়নি আনহেল দি মারিয়া ও সের্হিয়ো আগুয়েরোর। পিএসজির হয়ে দারুণ ফর্মে থাকলেও বাদ পড়েছেন ডি মারিয়া। আর অস্ত্রোপচারের পর এখনও অনুশীলনেই যোগ দিতে পারেননি আগুয়েরো, তাই তার দলে জায়গা না পাওয়া স্বাভাবিক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *