আসিফ নজরুলকে গ্রে’প্তা’রের দাবি

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের অধ্যাপক ড.আসিফ নজরুলের দেওয়া এক স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে তাকে গ্রে’প্তারের দাবি উঠেছে। এই দাবিতে প্রতিবাদ সমাবেশের ডাক দিয়েছে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ।

আসিফ নজরুল মঙ্গলবার (১৭ আগস্ট) দুপুরে তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাস দেন। এতে তিনি লেখেন, ‘সুষ্ঠু নির্বাচন হলে কাবুল বিমানবন্দর ধরনের দৃশ্য বাংলাদেশেও হতে পারে।’ তার স্ট্যাটাসটি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা শুরু হয়।

অনেকে তার এই বক্তব্যকে রাষ্ট্রবিরোধী হিসেবেও আখ্যা দিয়েছেন। আবার কেউ বলছেন, এ ধরনের স্ট্যাটাস দিয়ে জঙ্গিবাদকে উসকে দিচ্ছেন আসিফ নজরুল। আসিফ নজরুলের এমন স্ট্যাটাসে ক্ষোভ প্রকাশ করে ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুর আলম তার ফেসবুকে লিখেছেন,

‘শিক্ষকদের কখনও বাজেভাবে বলি না, কিন্তু একটা প্রশ্ন শিক্ষক নামধারী সাম্প্রদায়িক লম্পট আসিফ নজরুলকে ধমক দেয়ার মতো একজন সিনিয়র শিক্ষকও কি নাই? যদি না থাকে তাহলে আসিফ নজরুলকে রাষ্ট্রবিরোধী মন্তব্যের কারণে গ্রে’প্তার করা হোক।’

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি তৌহিদুল ইসলাম চৌধুরী লিখেছেন, ‘জঙ্গিবাদের উসকানিদাতা হেফাজতের ঘেটু আসিফ নজরুলকে দেশবিরোধী মন্তব্যের জন্য গ্রেপ্তারের দাবি জানাচ্ছি।’ বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি আল মামুন লিখেন, ‘আপনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলঙ্ক। মৌলবাদের উ’সকা’নিদাতা।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের সাবেক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিবিষয়ক সম্পাদক আরিফ ইবনে আলী লিখেছেন, ‘তাইলে, আপনি বছরের পর বছর টিকে রইলেন ক্যামনে! আত্মসমালোচনা, গঠনমূলক পর আলোচনা বোঝেন না। বোঝেন তালগাছ, পারেন হিপোক্রেসি আর উল্টো দিক ঘুরে পাহাড় ঠেলতে!

ঢাকার বিমানবন্দর যদি কাবুল হয় তবে লন্ডনে পালিয়ে থাকাদের কাছে তখন হিথ্রো হবে কি? পানিপথ?’ সেই পোস্টে অনেকে আসিফ নজরুলের বক্তব্যকে সমর্থন করেও মন্তব্য করেছেন। যদিও এই স্ট্যাটাস সম্পর্কে আসিফ নজরুল এখনও স্পষ্ট করে গণমাধ্যমকে কিছুই বলেননি।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.