আ.লীগের ১৬ নেতাকে বহিষ্কার

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নৌকার বিরোধিতা করে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করায় চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার ১৬ নেতাকর্মীকে সাময়িক বহিষ্কার করেছে আওয়ামী লীগ। গতকাল বুধবার (২৬ জানুয়ারি) চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আলহাজ আবু জাফর স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সভায় সভাপতিত্ব করেন দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগ সংগঠনের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমদ ও সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করায় ও দলীয় শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে নেতাকর্মীদের সাময়িকভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে। স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের জন্য কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগে সুপারিশ পাঠানো হবে।

বহিষ্কৃতরা হলেন, চরতি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মাঈনুদ্দীন চৌধুরী, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা যুবলীগের মহিলাবিষয়ক সম্পাদক, নলুয়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান তসলিমা আবছার, উপজেলা কৃষক লীগের সহসভাপতি মিজানুর রহমান, কাঞ্চনা ইউনিয়নের মোহাম্মদ ছালাম, আমিলাইষ ইউনিয়নের মোজাম্মেল হক চৌধুরী, আমিলাইষ ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সদস্য এইচ এম হানিফ ও এস এম হারুন,

পশ্চিম ঢেমশা ইউনিয়নে আবদুল মাবুদ সেন্টু রিদোয়ানুল হক সুমন, কালিয়াইশ ইউনিয়নে ফেরদৌস চৌধুরী সোহেল ও অ্যাডভোকেট আতাউর রহমান, ১২নং ধর্মপুর ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক মোহাম্মদ ইলিয়াস চৌধুরী,

বাজালিয়া ইউনিয়নে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক শহীদুল্লাহ চৌধুরী, ছদাহা ইউনিয়নে রফিক মাহমুদ চৌধুরী, সোনাকানিয়া ইউনিয়নে উপজেলা যুবলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সেলিম উদ্দিন চৌধুরী ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য মাস্টার আবু তাহের।

এ ছাড়াও বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে অর্থাৎ নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে যেসব নেতা কাজ করছেন বা প্রচার-প্রচারণায় অংশ নিয়েছেন তাদের বিরুদ্ধেও সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানানো হয়েছে আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে।

Sharing is caring!