ইরানকে ঠেকাতে বিমানবাহী যু’দ্ধজাহাজ মোতায়েন যুক্তরাষ্ট্রের

ইরানের বি’রুদ্ধে অবৈধভাবে একতরফা অস্ত্র নি’ষেধা’জ্ঞা বহাল রাখার হুমকি দেয়ার পর পারস্য উপসাগরে একটি বিমানবাহী যু’দ্ধজাহাজ পাঠিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। ইউএসএস নিমিৎজ নামের ওই বিমানবাহী যুদ্ধজাহাজটি ইতোমধ্যেই হরমুজ প্রণালী পেরিয়ে পারস্য উপসাগরের পানিসীমায় প্রবেশ করেছে। গত ১০ মাসের মধ্যে এই প্রথম কোনো মার্কিন বিমানবাহী যু’দ্ধজাহাজ পারস্য উপসাগরে মোতায়েন করা হলো।

যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, পারস্য উপসাগরে একটি স্ট্রাইক গ্রুপ পাঠানো হয়েছে যার নেতৃত্বে রয়েছে ইউএসএস নিমিৎজ। ওই গ্রুপে রয়েছে দুটি গাইডেড মিসাইল ক্রুজার এবং একটি গাইডেড মিসাইল ডেস্ট্রয়ার। পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চলের মিত্রদেরকে প্রশিক্ষণ দেয়ার কাজ করবে এই স্ট্রাইক গ্রুপ।

ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, গত জুলাই মাস থেকে নিমিৎজ পঞ্চম নৌবহর এলাকার মধ্যে কাজ করছে এবং বর্তমানে তারা প্রস্তুতির শীর্ষ পর্যায়ে রয়েছে। ২০১৯ সালের নভেম্বর মাসে ইউএসএস আব্রাহাম লিংকন বিমানবাহী যু’দ্ধজাহাজ পারস্য উপসাগর থেকে চলে যায়। এরপর ইউএসএস নিমিৎজ স্ট্রাইক গ্রুপ পারস্য উপসাগরে এলো।

গত মঙ্গলবার মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেছেন, জাতিসংঘের অ’স্ত্র নি’ষেধা’জ্ঞার মেয়াদ শেষ হলে যুক্তরাষ্ট্র একাই তা বহাল রাখবে এবং রাশিয়া ও চীনের কাছ থেকে ইরানকে অ’স্ত্র কেনার সুযোগ দেয়া হবে না। তিনি বলেন, ইরানের অ’স্ত্র কেনা ঠেকাতে যা করা প্রয়োজন আমেরিকা তাই করবো। ইরানের ওপর নি’ষেধা’জ্ঞা বহাল রাখার জন্য আমেরিকা প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নেবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*