উত্তর কোরিয়া নিয়ে আমেরিকার দ্বৈত আচরণ!

সম্প্রতি নতুন করে ব্যা’লিস্টি’ক ক্ষে’পণা’স্ত্র পরীক্ষার পর উত্তর কোরিয়া নিয়ে দ্বৈত আ’চরণ শুরু করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এরই মধ্যে আবারও পিয়ং ইয়ংয়ের সঙ্গে সংলাপে বসার আগ্রহ প্রকাশ করেছে ওয়াশিংটন। মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপ মুখপাত্র জ্যালিনা পোর্টার শনিবার দাবি করেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র কূটনৈতিক উপায়ে সমস্যা সমধানে বিশ্বাসী এবং আমরা উত্তর কোরিয়াকে আলোচনার টেবিলে ফিরে আসার আহ্বান জানাই।

তিনি এমন সময় কূটনৈতিক উপায়ের কথা বললেন যখন উত্তর কোরিয়ার বি’রুদ্ধে শা’স্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার জন্য জাতিসংঘের দ্বারস্থ হতে যাচ্ছে বাইডেন প্রশাসন। জাতিসংঘে নিযুক্ত আমেরিকার স্থায়ী প্রতিনিধি লিন্ডা টমাস গ্রিনফিল্ড শুক্রবার বলেছেন, উত্তর কোরিয়ার ক্ষে’পণা’স্ত্র পরীক্ষা নিয়ে উ’দ্বিগ্ন ওয়াশিংটন এবং বিষয়টি জাতিসংঘের নিষে’ধাজ্ঞা কমিটিতে উত্থাপন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

গ্রিনফিল্ড বলেন, জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের নিষেধাজ্ঞা কমিটির সদস্য দেশগুলো শিগগিরই উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বৈঠকে বসবে। তবে আসন্ন বৈঠক থেকে বড় ধরনের কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে কিনা তা এখনও স্পষ্ট নয়।

এর আগে গত মার্চ মাসে ওই কমিটি উত্তর কোরিয়ার ক্ষে’পণা’স্ত্র পরীক্ষা নিয়ে একবার বৈঠক করেছিল কিন্তু সে বৈঠক থেকে নি’ষেধা’জ্ঞার কোনও সিদ্ধান্ত বের করা যায়নি। উত্তর কোরিয়া গত বুধবার ট্রেন থেকে নিক্ষেপযোগ্য একটি ক্ষে’পণা’স্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার পরীক্ষা চালায়। পিয়ং ইয়ং ঘোষণা করে, এ ব্যবস্থা দিয়ে উত্তর কোরিয়ার নিরাপত্তার জন্য বিঘ্ন সৃষ্টিকারী যেকোনও হুমকি মোকাবিলা করা হবে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.