উপকূল ধরে দ্রুত অগ্রসর হচ্ছে ইরানের যুদ্ধজাহাজ!

ইরানের দুটি যু’দ্ধজা’হাজ আ’ফ্রিকার পূর্ব উপকূল ধরে দক্ষিণে অগ্রসর হচ্ছে। মার্কিন গণমাধ্যম পলিটিকো জানিয়েছে, ওই যু’দ্ধ’জা’হাজ দুটি সম্ভবত ভে’নেজুয়েলার দিকে যাচ্ছে। খবর দ্য জে’রুজা’লেম পোস্টের। যুক্তরাষ্ট্র ওই জাহাজ দুটির অগ্রগতি পর্যবেক্ষণ করছে। ওই বহরে একটি ফ্রি’গেট এবং মাকরান রয়েছে।

এই যু’দ্ধ’জা’হাজ দুটি দক্ষিণ আ’মেরিকায় ইরানের মিত্র দেশের দিকে অ’গ্রসর হচ্ছে। তবে তাদের গন্তব্য, কার্গো এবং লক্ষ্য স্পষ্ট নয়। যদি ইরান সত্যিই দক্ষিণ আমেরিকার দিকে ওই জাহাজ দুটি পাঠায়, তাহলে যু’ক্তরাষ্ট্রের পেছনে গোলকধাঁধাঁময় একটি পদক্ষেপ নিয়েছে তারা।

কেননা ইরানের পরমাণু চুক্তি নিয়ে ভিয়েনায় যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আলোচনা চলছে তেহরানের। এমতাবস্থায় যদি এই আলোচনা ফলপ্রসূ হয় তাহলে ইরানের ওপর থেকে অর্থনৈতিক নি’ষেধাজ্ঞা তুলে নেবে হোয়াইট হাউজ। ওই অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞার কারণে ইরানের অর্থনীতিক অনেকাংশেই ভেঙে পড়েছে।

মাকরান একটি তে’লের ট্যাং’কার হি’সেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। এর আগেও ইরান তার দক্ষিণ আমেরিকার মি’ত্র দেশটির কাছে তেল পাঠিয়েছে। সবশেষ গত এপ্রিলে ভে’নেজুয়েলাকে তেল পাঠিয়েছিল ইরান। ভেনেজুয়েলা এবং ইরান দুই দেশের ওপরই মার্কিন নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। তাই সাম্প্রতিক বছরগুলোতে দুই দেশের মধ্যে সম্পর্ক গভীর হয়েছে। যদিও বিশ্বের সবচেয়ে বেশি তেল মজুদ রয়েছে ভেনেজুয়েলায়।

এমনকি এক সময় বিশ্বের শীর্ষ তেল রপ্তানিকারক দেশ ছিল ভেনেজুয়েলা। কিন্তু দেশটিতে এখন জ্বা’লানি সংকট দেখা দিয়েছে। সেই সংকট কমাতেই ইরান ভেনেজুয়েলায় তেল পাঠাচ্ছে। পলিটিকো জানিয়েছে, ওই জাহাজ দুটি না ভিড়তে দিতে ভেনেজুয়েলা সরকারকে পরামর্শ দেয়া হয়েছে। যদিও তাদের অবস্থান এখনও স্পষ্ট নয়।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.