উপাই না পেয়ে হাসান মাহমুদকে দক্ষিন আফ্রিকায় পাঠাচ্ছে বিসিবি

চলতি বছরে মার্চে নিউজিল্যান্ড থেকে ইনজুরি নিয়ে দেশে ফেরেন হাসান মাহমুদ। পরে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) মেডিক্যাল বিভাগ থেকে জানানো হয়, ফ্যাসিট জয়েন্ট ইনজুরি ভোগাচ্ছে এ তরুণকে। এর পর দীর্ঘ দিন ধরে রিহ্যাবে আছেন তিনি। ইনজুরির কারণে খেলতে পারেননি ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ (ডিপিএল)। শ্রীলঙ্কা সফর ও হোম সিরিজ।

নেই বিশ্বকাপের স্কোয়াডেও। খেলতে পারবে না আসন্ন জাতীয় ক্রিকেট লিগও(এনসিএল)। কবে ইনজুরির অভিশাপ থেকে মুক্তি পাবেন সেটি জানা নেই হাসান মাহমুদেরও। তাই উপায় না পেয়ে এবার তাঁর উন্নত চিকিৎসার জন্য দক্ষিণ আফ্রিকা পাঠাবে বিসিবি।

যেখানে সঠিক বায়োমেকানিক্যাল বোলিং করতে পারবেন তিনি। হাসান মাহমুদের বিদেশে পাঠানোর প্রসঙ্গে বিসিবি’র প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী জানিয়েছেন,’আমাদের তত্ত্বাবধানে বেশ দীর্ঘ সময় আছে। আমরা বিভিন্ন সময়,বিভিন্ন ভাবে হাসান মাহমুদের চিকিৎসা পরীক্ষা-নিরীক্ষা , স্ক্যান করেছি।

পরীক্ষা-নিরীক্ষায় আমরা বড় কোন সমস্যা পায়নি। এখন আমরা মনে করছি তাঁর একটা সঠিক বায়োমেকানিক্যাল বোলিং দরকার। যেটা দুর্ভাগ্যবশত আমাদের দেশে সম্ভব না। তাই তাকে বিদেশে যেখানে এই সুবিধা আছে সেখানে পাঠিয়ে ওর(হাসান) একটা ফুল মূল্যায়ন দরকার।

তো আমরা দুই তিন জায়গায় কথা বলেছি।সব যদি ঠিক মত আগাতে পারি তাহলে আগামী দুই-তিন সপ্তাহের মধ্যে দেশের বাহিরে পাঠাতে পারবো।’ গত মাসের ২৩ তারিখ থেকে মিরপুর স্টেডিয়ামের একাডেমির মাঠে অনুশীলন শুরু করেন হাসান। সেই সময় তাঁর সঙ্গে কাজ করতে দেখা যায় ফিজিও বায়েজিদ ও জুলিয়ানকে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.