এক পীরের দাফন ঠেকাতে আদালতে আরেক পীর!

রাজধানী ঢাকার সেগুনবাগিচায় পাঞ্জেরিয়া দরবারের জায়গায় পীর ইয়াহিয়া হাসানের ম’রদে’হের দা’ফন আ’টকাতে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে। আজ সোমবার এ সংক্রান্ত নির্দেশনা চেয়ে রিটটি দায়ের করেছেন কথিত পীর সৈয়দ ইয়ামিনুল হাসান চিশতী। এই দুই পীরের মধ্যে ইয়ামিনুলের চাচা হন ইয়াহিয়া।

পীর ইয়ামিনুলের পক্ষে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিট আবেদন করেন ব্যারিস্টার এম. আতিকুর রহমান। বিষয়টি নিশ্চিত করে তিনি জানান, এটির ওপর বিচারপতি মামনুন রহমান ও খোন্দকার দিলীরুজ্জামানের বেঞ্চে শুনানি হতে পারে।

রিটে জেলা প্রশাসকের কাছে জমা দেয়া আবেদনের নিষ্পত্তির নির্দেশনা এবং লিজ নেয়া জায়গার ওপর স্থিতাবস্থা চাওয়া হয়েছে। এতে ভূমি মন্ত্রণালয়ের সচিব, ঢাকার বিভাগীয় কমিশনার, ঢাকার জেলা প্রশাসক, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) ও রমনা থানার ওসিকে বিবাদী করা হয়।

জানা গেছে, ১৯৭৯ সালে ঢাকা জেলা প্রশাসক পাঞ্জেরিয়া দরবার শরীফের জায়গা লিজ দেয় কেবল ধর্মীয় উপাসনার জন্য। ২০১৭ সালে দিল্লির খাজা নিজামউদ্দিন আওলিয়ার খেলাফত নেন পীরজাদা সৈয়দ মো. ইয়ামিনুল হাসান চিশতী। তার চাচা খেলাফতপ্রাপ্ত সৈয়দ ইয়াহিয়া হাসান গত ২৪ ডিসেম্বর মা’রা গেলে দরবারে তার দাফনে আপ’ত্তি জানান ভাতিজা ইয়ামিনুল।

ইয়াহিয়া হাসানের মরদেহ দরবারে দাফনের জন্য ঢাকা জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকের কাছে আবেদন করেন তার অনুসারীরা। উভয়পক্ষকে ডেকে মরদেহটি সেখানে দা’ফনের অনুমতি দেন ঢাকার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব)। এ নিয়ে ঢাকা জেলা প্রশাসকের কাছে পাল্টা আবেদন করেন ইয়ামিনুল।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.