‘এটা ক্রিকেটের ইতিহাসে সবচেয়ে বাজে রিভিউ’ (ভিডিও)

ক্রিকেটে ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম (ডিআরএস) নিতে আবেদন করা হয় সাধারণত যখন ব্যাটার আউট কি আউট না-এ বিষয়ে আম্পায়ারের দেওয়া সিদ্ধান্তের বিপক্ষে জোরালো সম্ভাবনা থাকে। কিন্তু ব্যাটের মাঝখানে বল লাগায় আউট দেননি আম্পায়ার। কিন্তু তাতেই রিভিউ নেয় বাংলাদেশ। যা নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে হচ্ছে সমালোচনা।

মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) প্রথম টেস্টে নিউজিল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৭তম ওভারে বল করেন তাসকিন। স্ট্রাইকে ছিলেন রস টেলর। সেই সময় নিউজিল্যান্ডের স্কোর ছিল ২ উইকেটে ৯০ রান। বাংলাদেশের থেকে পিছিয়ে ছিল ৪০ রানে। সেই ৩৭তম ওভারের পঞ্চম বলে ইয়র্কার করেন তাসকিন। তারপর এলবিডব্লুউয়ের আবেদন করেন।

উইকেটকিপার লিটন দাসও আবেদন করেন। তবে কেউই জোরালো আবেদন করেননি। এ সময় ডিআরএস নেওয়া হবে কিনা, তা নিয়ে আলোচনা করতে থাকেন বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা। বিশেষত তাসকিন রিভিউ নিতে মরিয়া ছিলেন। বোলারের কথা শুনে একেবারে শেষ মুহূর্তে রিভিউ নেন মুমিনুল হক।

তবে তার অঙ্গভঙ্গি দেখেও মনে হচ্ছিল না যে খুব একটা নিশ্চিত ছিলেন। রিভিউয়ে অধিনায়কের আশঙ্কাই সত্যি প্রমাণিত হয়। রীতিমতো এতে ট্রোলের মুখে পড়েন তাসকিনরা। রিভিউতে দেখা যায়, পায়ের কোথাও বলই লাগেনি। প্যাডের যথেষ্ট দূর থেকে বল গেছে। পরিষ্কার ব্যাট দিয়ে বল রুখে দিয়েছেন টেলর।

বল ও প্যাডের এতটাই দূরে ছিল যে খালি চোখেই রিভিউ বাতিল হয়ে যায়। যেটা ছিল বাংলাদেশের শেষ রিভিউ। এমন ঘটনায় সামাজিক মাধ্যমে হচ্ছে ট্রল। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে একজন ভিডিওটি শেয়ার করে লিখেন, এটা হতে পারে ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে জঘন্য রিভিউ।

ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.