ওমিক্রন আতঙ্কের মধ্যেই নতুন ধরন শনাক্ত

সাইপ্রাসে করো’নাভাই’রাসের নতুন ধরন ডে’ল্টাক্রন শনা’ক্ত হয়েছে। এটির ডেল্টা ধরনের মতো জিনগত ভিত্তি এবং ওমিক্রন ধরন থেকেও কিছু মিউটেশন ঘটেছে। গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বলা হয়, এটি এই মুহূর্তে উদ্বিগ্ন হওয়ার মতো কিছু না বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

সাই’প্রাস মেইলের বরাত দিয়ে জেরু’জালেম পোস্টের প্রতিবেদনে বলা হয়, ২৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১০ জনের দেহে ডে’ল্টাক্রন শনা’ক্ত হয়। এর মধ্যে ভাই’রাসটিতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন এমন ১১ জন এবং সাধারণ মানুষ থেকে বাকি ১৪ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল।

সাইপ্রাস বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োটেকনোলজি অ্যান্ড মলিকিউলার ভাইরোলজি ল্যাবরেটরির প্রধান ড. লিওনডিওস কোস্ত্রিকিস বলেন, হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীদের দেহে ভাইরাসটির উচ্চমাত্রায় মিউটেশন ঘটেছে। ভাইরাসটির নতুন ধরন ও হাসপাতালে ভর্তির মাঝে একটি সম্পর্ক থাকতে পারে। শনিবার (৮ জানুয়ারি) সাইপ্রাসের স্বাস্থ্যমন্ত্রী মিকালিস হাজিপ্যানডেলাস বলেন, এই মুহূর্তে নতুন ধরনটিতে উদ্বিগ্ন হওয়ার মতো কিছু না।

নতুন ধরনটি আবিষ্কারে গর্ব প্রকাশ করেন মন্ত্রী। হাজিপ্যানডেলাস বলেন, ড. কোস্ত্রিকিসের দলের যুগান্তকারী গবেষণা ও ফলাফল আমাদের বিজ্ঞানীদের গর্বিত করেছে। জেরুজালেম পোস্টের তথ্যমতে, মন্ত্রী আরও উল্লেখ করেন, গবেষণাটি সাইপ্রাসকে স্বাস্থ্য বিষয়ে বিশ্ব মানচিত্রে স্থান করে দিয়েছে। এখন পর্যন্ত নতুন ধরনটির বৈজ্ঞানিক নাম ঘোষণা করা হয়নি।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.