কাবুলের পথে পথে সস্তায় বিক্রি হচ্ছে ইরানি জ্বালানি

সাম্প্রতিক সময়ে আ’ফগানি’স্তানের রাজধানী কাবুলের পথে পথে সস্তায় ইরানি জ্বালানি বিক্রি নাটকীয়ভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। আফগানিস্তানের গণমাধ্যম টোলো নিউজ এ তথ্য জানায়। খবরে বলা হয়, রাস্তায় প্রতি লিটার পে’ট্রল বিক্রি হচ্ছে ফিলিং স্টেশনের চেয়ে ১০ আফগানি কমে।

বিক্রেতারা বলছেন, এসব পেট্রল ইরান থেকে আসা।কিন্তু তারা জানেন না কীভাবে এসব পে’ট্রল আফ’গানিস্তানে ঢুকেছে। রাস্তায় বিক্রি হওয়া প্রতি লিটার পেট্রলের দাম ৫৪ আফগানির কাছাকাছি। আর ফিলিং স্টেশনে প্রতি লিটার পে’ট্রল বিক্রি হয় ৭০ আফগানিতে।

মুহাম্মদ জাকারিয়া নামের এক বিক্রেতা বলেন, আমরা এসব জ্বালানি দেহ সবজ জেলা থেকে প্রতি লিটার ৫২ আফগানিতে কিনে ৫৪ আফগানিতে বিক্রি করি। বলা হয়, এগুলো ইরানি জ্বালানি। ফজল নামের অপর এক বিক্রেতা বলেন, এক সপ্তাহ আগেও আমরা প্রতি লিটার জ্বালানি ৪৭ আফগানিতে কিনে ৫২ আফগানিতে বিক্রি করতাম।

বিক্রেতারা বলছেন, শুল্ক বেড়েছে তাই দামও বেড়েছে। কাবুলের গাড়িচালকারা এ পেট্রল কিনছেন। এ পে’ট্রল নিম্ন’মানের হলেও সস্তা। গুল মুহাম্মদ নামের একজন বলেন, এ জ্বালানি সস্তা। কিন্তু আমাদের ইঞ্জিনের জন্য এ জ্বালানি ভালো নয়।

দেশে অবৈধভাবে জ্বা’লানি আসার পরও এ বিষয়ে আফগানিস্তান চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের কোনো কর্মকর্তা এ বিষয়ে মন্তব্য করতে রাজি হননি। নিষেধাজ্ঞার কারণে আফগানিস্তানের ব্যবসায়ীরা বৈধভাবে ইরান থেকে জ্বালানি কিনতে পারেন না। তাই অনেকে অবৈধভাবে জ্বালানি নিয়ে আসাকে বিকল্প হিসেবে বেছে নেন।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.