কোপা আয়োজনে ব্রাজিল সরকারের ‘গ্রীন সিগন্যাল’

মহামারী ক’রোনাভাইরাস এবং দেশজুড়ে চলমান অস্থিতিশীল পরিস্থিতিতে কোপা আমেরিকা আয়োজন থেকে আগেই নাম প্রত্যাহার করে নেয় কলম্বিয়া। আরেক আয়োজক আর্জেন্টিনা সেই পথে না হাঁটলেও তাদেরকে ঠিকই সরিয়ে দেয় দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবল নিয়ন্ত্রক সংস্থা কনমেবল। অবশেষে আয়োজক হিসেবে সংস্থাটি ঘোষণা করে ব্রাজিলের নাম।

এবার ব্রাজিল সরকারের পক্ষ থেকেও জানানো হলো টুর্নামেন্টটি আয়োজনে তাদের সম্মতির কথা। রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, ব্রাসিলিয়ায় মঙ্গলবার সমর্থকদের সঙ্গে কথা বলার সময় বোলসোনারো বলেন, তার মন্ত্রিসভা ও সরকার কোপা আমেরিকা আয়োজনে রাজি হয়েছে। কোপা আমেরিকার শতবর্ষ পেরোনো ইতিহাসে এবারই প্রথমবারের মতো দুই দেশের যৌথ আয়োজনে হওয়ার কথা ছিল এবারের আসর।

কিন্তু কলম্বিয়ায় সরকারবিরোধী আন্দোলন চলায় গত ২০ মে সেখান থেকে টুর্নামেন্ট সরিয়ে নেওয়ার কথা জানায় দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবল কনফেডারেশন (কনমেবল)। পরে আর্জেন্টিনা চেয়েছিল এককভাবে আয়োজন করতে। কিন্তু দেশটির করোনাভাইরাস পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় সেখানেও আসর না হওয়ার কথা রোববার জানানো হয়।

আর্জেন্টিনাকে আয়োজক থেকে বাদ দেওয়ার পর ২৪ ঘণ্টারও কম সময়ের মধ্যে সোমবার ব্রাজিলকে আয়োজক হিসেবে ঘোষণা করে কনমেবল। নির্ধারিত ১৩ জুনেই শুরু হবে আসরটি। শেষ হবে ১০ জুলাই। তবে আয়োজক শহর এবং ম্যাচগুলোর বিস্তারিত এখনও জানানো হয়নি।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.