খেলোয়াড়দের জন্য মাহমুদউল্লাহর অনুরোধ, ব্যবস্থা নিচ্ছে বিসিবি

প্রায় পাঁচ মাস ধরে ক্রিকেটের মধ্যে আছেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে প্রায় মাস খানেক খেলার পর জিম্বাবুয়ে সফর। সেখান থেকে দেশে ফিরে অসেট্রলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে টি-টোয়েন্টি সিরিজ। ঘরের মাঠে জোড়া সিরিজ খেলে টাইগাররা উড়াল দেয় মধ্যপাচ্যে।

এখানেও এক মাসের অভিযান। সবিমিলিয়ে ব্যস্তসূচি শেষ করে আজ দেশে ফিরেছে টাইগাররা। তাদের এই ফেরাটা সুখের হয়নি। সংযুক্ত আরব আমিরাতে বিশ্বকাপের মূলপর্বের পাঁচ ম্যাচের পাঁচটি হার ফেরার বেলায় সঙ্গী হয়েছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদদের।

অধিনায়কের মতে, বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের ভরাডুবির একটি কারণ ক্লান্তি। জৈব সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে টানা পাঁচ মাস খেলার মধ্যে থাকায় মানসিক অবসাদ ছুঁয়ে গেছে তাদের। এ বিষয়টি বিবেচনার জন্য বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের কাছে অনুরোধ করেছেন অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ।

অস্ট্রেলিয়ার কাছে বিব্রতকর হারের পর সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেছেন, ‘আমি একটু আবেগাক্রান্ত হয়ে পড়েছিলাম। আমরা চার-পাঁচ ধরে ক্রিকেট খেলছি বায়ো বাবলের মধ্যে। হয়তো বিশ্বকাপের আগে বিরতি পেতাম না যদি ইংল্যান্ডের সিরিজটি বাতিল না হতো। এটা আমি অপারগতা হিসেবে বলছি না, কিন্তু ক্রিকেটারদের দিকে তাকিয়ে এই বিষয়টা একটু দেখা উচিত।’

খেলোয়াড়দের এই অনুরোধের প্রেক্ষিতে ব্যবস্থা নিচ্ছে বোর্ড। আজ টাইগাররা দেশে ফেরার পর বিসিবির প্রধান চিকিৎসক জানালেন, ক্রিকেটারদের মানসিক অবসাদ মুক্ত রাখতে ব্যবস্থা নিচ্ছেন তারা। দেবাশিষ বলেছেন, ‘এখন ক্রিকেটাররা ছুটি কাটাচ্ছেন। জৈব সুরক্ষা বলয়ে থাকার সময় কারও প্রয়োজন হলে আলাদা করে কাউন্সেলিংয়ের ব্যবস্থা করা হবে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.