গ্রামে গরুর গোবরে দীপাবলী পালন

একে অপরের দিকে মুষ্টি মুষ্টি গরুর গোবর ছুঁড়ে মেরে দীপাবলী পালন করেছে ভারতের একটি গ্রামের হিন্দু ধর্মাবলম্বী উন্মত্ত যুবকরা। স্পেনের উদ্ভট টমেটো-হার্লিং উদযাপন ‘লা টোমাটিনা’ উৎসবের অনুরূপ গোমাতাপুরার বাসিন্দারা এর পরিবর্তে স্নোবল আকারের গরুর গোবরের বল ছুঁড়ে মারে।

কর্ণাটক এবং তামিলনাড়ুর দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোর সীমান্তে অবস্থিত গ্রামের গরুর গোয়ালগুলো থেকে ‘গোলাবারুদ’ সংগ্রহের মধ্য দিয়ে শনিবার গোরেহাব্বা উৎসব শুরু হয়। একজন পুরোহিত আশীর্বাদা করার আগে গোবরগুলো ট্রাক্টর-ট্রলিতে করে স্থানীয় মন্দিরে নিয়ে আসা হয়। এর পরে গোবর একটি খোলা জায়গায় রাখা হয়। যুবক এবং তরুণরা আসন্ন যুদ্ধের জন্য প্রস্তুতি নেয়।

প্রতি বছর দূর-দূরান্তের শহর থেকে মানুষ গোমাতাপুরায় আসে এবং যারা সেখানে আসে তাদের জন্য এ হট্টগোল যতটা মজার, ততটাই মজাদার স্বাস্থ্য উপকারিতা নিয়ে।
শনিবারের মেলায় আগত কৃষক মহেশ বলেন, ‘যদি তার কোনো রোগ থাকে, তাহলে সে সুস্থ হয়ে যাবে’।

কিছু হিন্দু বিশ্বাস করে যে, গরু এবং তাদের উৎপাদিত সবকিছু পবিত্র এবং বিশুদ্ধ। হিন্দু জাতীয়তাবাদী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি পশুদের সর্বোচ্চ সুরক্ষার আহ্বান জানিয়েছেন এবং ভারতের বেশ কয়েকটি রাজ্য দীর্ঘদিন ধরে তাদের জবাই নিষিদ্ধ করেছে।

মোদির দলের সদস্যরা কোনো বৈজ্ঞানিক ভিত্তি ছাড়াই করোনা এবং অন্যান্য রোগ প্রতিরোধ ও চিকিৎসার জন্য গোমূত্র ব্যবহারের আহ্বান জানিয়েছেন। তার সরকার পশুর বর্জ্য থেকে টুথপেস্ট, শ্যাম্পু তৈরি এবং মশা নিরোধক উৎপাদনে উৎসাহ দেয়ার চেষ্টা করছে। সূত্র : এএফপি, এবিসি নিউজ।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.