ছাত্রী-শিক্ষকের ফোনালাপ ফাঁস, শিক্ষকের ‌‘হার্ট অ্যাটাক’

মোবাইল ফোনে নিজ স্কুলের ছাত্রীকে অনৈতিক প্রস্তাব দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া সেই শিক্ষক ‘হার্ট অ্যাটাক’ করে চিকিৎসাধীন আছেন বলে জানা গেছে। সূত্র মতে, ছাত্রীর সঙ্গে তার আপত্তিকর ফোনালাপ ছড়িয়ে পড়ার পর ‘হৃদরোগে আক্রান্ত’ হয়ে ময়মনসিংহের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন

সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার হাজী লাল মামুদ উচ্চ সহকারী প্রধান শিক্ষক মো. শাহীন উদ্দিন। এদিকে, বুধবার অভিযুক্ত শিক্ষকের বিচার ও অপসারণ দাবি করে স্কুল ক্যাম্পাসে প্রতিবাদ সভা করেন অভিভাবক ও শিক্ষাথীরা। বিচার না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার কথা জানিয়েছেন আন্দোলনের নেতৃত্বে থাকা অভিভাবক অ্যাডভোকেট আমিরুল হক।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি ওই স্কুলের এক ছাত্রীর সঙ্গে সহকারী প্রধান শিক্ষক মো. শাহীন উদ্দিনের আপত্তিকর একটি ফোনালাপ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। ফোনালাপে শিক্ষক কর্তৃক ছাত্রীকে কুপ্রস্তাব দিতে শোনা যায়। ফোনালাপটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় নিন্দা ও প্রতিবাদের ঝড় ওঠে। অভিভাবক ও শিক্ষার্থীরা অভিযুক্ত শিক্ষককের অপসারণ ও বিচার দাবি করেন।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.