জন্মদিনে মুস্তাফিজকে নিয়ে রাজস্থানের মজার পোষ্ট

৬ সেপ্টেম্বর কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমানের জন্মদিন। আজকের এই দিনেই ২৬তম বসন্তে পা দিয়েছেন বাঁহাতি এই পেসার। সাতক্ষীরায় জন্ম নেয়া এই ক্রিকেটার ধীরে ধীরে দেশের গণ্ডী পেরিয়ে গোটা ক্রিকেট বিশ্বেই এখন আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছেন।

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের হয়ে ২০১৫ সালে অভিষেক হবার পর থেকেই নিজেকে নিয়ে গেছেন অনন্য উচ্চতায়। ভারতের বিপক্ষে অভিষেক সিরিজে বাজিমাত করে কাটার মাস্টার উপাধি পাওয়া মুস্তাফিজকে পরের বছরই নেয়া হয় ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটের সবচেয়ে জমজমাট আসর ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ বা আইপিএলে।

আইপিএলে নিজের প্রথম আসরেই সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদকে শিরোপা জেতানোর পর একমাত্র বিদেশি ক্রিকেটার হিসেবে সেরা উদীয়মান ক্রিকেটার নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি। বাঁহাতি এই পেসার পরবর্তিতে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে খেলার পর সর্বশেষ যোগ দিয়েছেন রাজস্থান রয়্যালসে।

রাজস্থানে যোগ দেয়ার পর যেন নতুন করে নিজেকে চিনিয়েছেন বাঁহাতি এই পেসার। দলের জয়ে অবদান রাখার পাশাপাশি গোটা আইপিএলেই নজর খেড়েছিলেন তিনি। চলতি বছরে অনুষ্ঠিত হওয়া আইপিএল ভারতের মাটিতে শুরু হলেও কোভিড পরিস্থিতির অবনতি হয়ে বায়ো বাবল ভেঙে যাওয়ায় শেষ পর্যন্ত টুর্নামেন্ট স্থগিত করে আয়োজকরা।

ফলে আইপিএলে খেলা বিদেশি ক্রিকেটাররা এখন খেলছেন নিজ দেশের হয়ে। যার ব্যতিক্রম নয় মুস্তাফিজুর রহমানও। তবে জাতীয় দলের খলা শেষে আবারও আইপিএলের বাকি অংশ খেলতে আরব আমিরাতে পাড়ি জমাবেন মুস্তাফিজ। সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়া সিরিজ শেষ করে বর্তমানে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচ টি-২০ সিরিজে খেলছেন মুস্তাফিজ।

তবে রাজস্থান ছেড়ে জাতীয় দলের হয়ে খেললেও তার পারফরম্যান্স নিয়ে হরহামেশাই রাজস্থান রয়্যালস তাদের সোশ্যাল হেন্ডেলে পোস্ট করে যাচ্ছে মুস্তাফিজকে নিয়ে। এবার কাটার মাস্টারের জন্মদিনে এসেও শুভেচ্ছা বার্তা জানিয়েছে রাজস্থান। মুস্তাফিজের জন্মদিন উপলক্ষ্যে রাজস্থান তাদের ফেসবুক পেইজে মুস্তাফিজের একটি ছবি পোস্ট করেছে।

এই ছবিতে দেখা যাচ্ছে জন্মদিনের কেক হাতে দাঁড়িয়ে আছেন মুস্তাফিজ। ওই ছবির ক্যাপশনে রাজস্থান রয়্যালস লেখেছে, ‘’যখন তুমি কাটার মাস্টারকে পেয়ে যাও তখন কোনো চাকু প্রয়োজন হয় না।‘’ এছাড়া এরপর আরেকটি ভিডিও পোষ্ট করে রাজস্থান, সেখানে দেখা যায় মোস্তাফিজের ছবি ব্যবহার করে এক ধরনের মজার ভিডিও তৈরি করা হয়েছে।

Sharing is caring!