জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক খেলোয়াড় এ এস এম ফারুক মারা গেছে

জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক খেলোয়াড় এ এস এম ফারুক আর নেই (ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। বুধবার (১৬ সেপ্টেম্বর) রাত ১১টার দিকে তার মৃত্যুর খরব জানা গেছে।২৯ অক্টোবর, ১৯৮৮ তারিখে চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত এশীয়া কাপ প্রতিযোগিতার ৪র্থ খেলায় পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়াহিদুল গণি ও আকরাম খানের সাথে তারও একযোগে একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষেক ঘটে।

খেলায় তার দল ১৭৩ রানে পরাজিত হয়েছিল।১৯৯০ সালে চন্ডিগড়ে তিনি তার সর্বোচ্চ ৫৭ রান করেন ভারতের বিরুদ্ধে। এ খেলায় তৃতীয় উইকেট জুটিতে আতহার আলী খানের সাথে ১০৮ রান করেন।খেলোয়াড়ী জীবনের প্রথমদিকে ঘরোয়া পর্যায়ের ক্রিকেট খেলায় ফারুক নিজেকে সফলতম অধিনায়ক হিসেবে গড়ে তোলেন।

এরফলে ১৯৯৩-৯৪ মৌসুমে দল নির্বাচকমণ্ডলী তাকে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মনোনীত করে। কিন্তু তার অধিনায়কত্বে কেনিয়ায় অনুষ্ঠিত ১৯৯৪ সালের আইসিসি ট্রফিতে বাংলাদেশ দল সেমি-ফাইনালে পৌঁছতে পারেনি; যদিও বাংলাদেশ দলকে প্রতিযোগিতার পূর্বেই শ্রেষ্ঠতর দল হিসেবে গণ্য করা হয়েছিল।

এ প্রতিযোগিতার পর অধিনায়কত্বসহ দল থেকে বাইরে চলে যেতে হয় তাকে। এরপর তিনি নবোদ্দ্যমে দলে ফিরে আসেন ও শীর্ষসারির ব্যাটসম্যান হিসেবে দলে অন্তর্ভুক্ত হন। ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত ১৯৯৯ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপে দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *