ডি-ভিলিয়ার্সের পরিবর্তে এই ৩ বিধ্বংসী ক্রিকেটার কিনতে পারে আরসিবি

পরের বছর আইপিএল এর মেগা নিলাম বসতে চলেছে ভারতের মাটিতে। এই মেগা নিলামে ভরতীয় ক্রিকেট বোর্ডের মূল লক্ষ্য হলো দুটি নতুন দলের সংযোজন এবং আরো নতুন নতুন ক্রিকেটারদের বিশ্ব ক্রিকেটের মঞ্চে তুলে ধরা। পরের বছর আইপিএল এর জন্য ইতিমধ্যে নতুন দুটি দলের নাম ঘোষিত হয়েছে দলটি দুটি যথাক্রমে হলো লখনৌ এবং অপরটি হলো আমেদাবাদ।

এছাড়াও পরবর্তী নিলামে আরো যে ব্যাপারটি সংযোজন করা হয়েছে সেটি হলো আইপিএল এর প্রতিটি দল তাদের দলের যেকোনো ৪জন খেলোয়াড়কে ধরে রাখতে পারবেন এবং বাকি খেলোয়াড়দের নিলামে তুলতে হবে। রয়েল চেলেন্জার্স বেঙ্গালোর আইপিএল দলগুলির মধ্যে অন্যতম শক্তিশালী একটি দল।

এই দলে যেমন বিরাট কোহলি, ডিভিলিয়ার্স দের মতো বিশ্বমানের তারকা ক্রিকেটাররা মজুত রয়েছেন ঠিক তেমনি হার্শাল প্যাটেলদের মতো তরুণ উঠতি প্রতিভাবান ক্রিকেটাররাও এই দলের সাথে যুক্ত। আরসিবি দল এই বছর তাদের অসাধারণ দলগত পারফর্মেন্স দেখিয়ে এই বছর পয়েন্টস টেবিলের প্রথম ৪এ জায়গা করে নিয়েছিল কিন্তু পরবর্তীতে তারা ফাইনালে পৌঁছাতে পারেনি।

বিরাট কোহলি ইতিমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছেন তিনি আর পরবর্তী আইপিএল থেকে আরসিবি দলের অধিনায়কত্ব করবেন না কিন্তু দলের হয়ে খেলে যাবেন। এখন আরো একটি বড়ো খবর পাওয়া যাচ্ছে বিশ্ব ক্রিকেটের সব থেকে ভালো “360” ব্যাটসম্যান ডিভিলিয়ার্স সব ধরণের ক্রিকেট থেকেই অবসর গ্রহণ করেছেন যিনি আরসিবি দলের একজন গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটারও বটে।

তাই আমরা এখানে আজ এমন ৩জন ক্রিকেটারকে নিয়ে আলোচনা করবো যারা পরবর্তী সিসনে আরসিবি দলে ডিভিলিয়ার্সের জায়গা নিতে পারেন।

যশ বাটলার: বিশ্ব ক্রিকেটে t20 ব্যাটসম্যানদের মধ্যে অন্যতম হলেন যশ বাটলার। ডানহাতি এই ইংলিশ ব্যাটসম্যান এই বছর আইপিএল দল রাজস্থান রয়্যালস দলের হয়ে অসাধারণ পারফর্মেন্স করেছেন এবং তার পাশাপাশি সদ্য সমাপ্ত t20 বিশ্বকাপেও অসাধারণ ব্যাটিং বিক্রম দেখিয়েছেন।

তার এই অসাধারণ ব্যাটিং পারফর্মেন্সের ওপর ভিত্তি করে পরবর্তী আইপিএল এ তিনি হয়তো আরসিবি দলের একজন নির্ভরযোগ্য ক্রিকেটার হয়ে উঠতে পারেন এবং ডিভিলিয়ার্সের অভাব মেটাতে পারেন।

চারিত আসালঙ্কা: শ্রীলংকা ক্রিকেটের তরুণ উঠতি ক্রিকেটার হলেন চারিত আসালংকা। বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান এই বছর t20 বিশ্বকাপে শ্রীলংকা দলের হয়ে অসাধারণ পারফর্মেন্স করে দেখিয়েছেন। আসালংকা বাঁহাতি ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি ডানহাতে অফ স্পিন বোলিং করতেও বেশ ভালো ভাবে সক্ষম।

তার এই অসাধারণ অলরাউন্ড পারফর্মেন্সের ওপর ভিত্তি করে তিনি পরবর্তী আইপিএল এ নিজের অভিষেক করার জন্য অপেক্ষায় আছেন এবং আরসিবি দল ডিভিলিয়ার্সের অভাব পূরণ করার জন্য তাকে দলে নিতে পারে বলে মনে করা যাচ্ছে।

মিচেল মার্শ: অস্ট্রেলিয়া দলকে এই বছর প্রথম t20 বিশ্বকাপ জেতানোর পেছনে সব থেকে বড়ো অবদানের কাজ করেছিলেন মিচেল মার্শ। ডানহাতি এই অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান ফাইনাল ম্যাচে অসাদাধারণ ইনিংস খেলে অস্ট্রেলিয়াকে ম্যাচ জিততে সাহায্য করে।

মিচেল মার্শ আইপিএল এ সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ দলের একজন গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার। কিন্তু পরবর্তী আইপিএল এ যদি হায়দ্রাবাদ দল তাকে নিলামে তোলে তাহলে আরসিবি অবশ্যই তাকে দলে নেবার জন্য ঝাঁপাবে কারণ তারা একজন বিধংসী ব্যাটসম্যানের অভাব পূরণ করতে চাইবে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.