তখন স্যাক্রিফাইস করেছি বলেই আইভি জিতেছিল

এবার সংসদ সদস্য শামীম ওসমান বলেছেন, ২০১১ সালের নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে দলীয় প্রতীকে নির্বাচন হয়নি। এছাড়া আরও কিছু ব্যাপার ছিল যেটা আমার বলা এখন ঠিক হবে না। তখন আমি আমার দল থেকে সেই নির্বাচনে আইভিকে স্যাক্রিফাইস করেছি। জনগণের বিপুল ভোটে ওনাকে জয়লাভ করানোটাই আমার কাজ ছিল, আর এটাই স্যাক্রিফাইস।

গতকাল বুধবার ১২ জানুয়ারি একটি টেলিভিশনে যুক্ত হয়ে এসব বলেন নারায়ণগঞ্জ ৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমান। এর আগে গত ২০১১ সালের নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভি বিপুল ভোটে জয়লাভ করেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্ধী শামীম ওসমানের চেয়েও ১ লাখ ১ হাজার ৩৪৩ ভোট বেশি পেয়ে জয় লাভ করেন। ওই নির্বাচনে শামীম ওসমান পান ৭৮ হাজার ৭০৫ ভোট।

সম্প্রতি নারায়ণগঞ্জে সংবাদ সম্মেলন বাধ্য হয়ে করেছেন কিনা জানতে চাইলে শামীম ওসমান বলেন, আমাকে কেউ বাধ্য করে নাই, চাপ দেই নাই। বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় যখন দেখলাম আমাকে নিয়ে অপপ্রচার চালানো হচ্ছে। তখন একপ্রকার নিজের বিবেকবোধ থেকেই সংবাদ সম্মেলনটি করেছি।

এদিকে আইভির অভিযোগ শামীম ওসমান তৈমুরকে সাপোর্ট দিচ্ছেন, এমন অভিযোগে শামীম ওসমান বলেন, কে কি বলল আর না বলল সেটা আমার দেখার বিষয় না। আমি আওয়ামী লীগ করি, আমার একটা আদর্শ আছে। আমার প্রতীক দেখা দরকার। কে কি বলছে, কেন বলছে এসব দেখার বিষয় না। তিনি বলেন, আমার অবস্থা এখন গরিবের বউ সবার ভাবির মত। এ বলেও আমি ওর দিকে আর ও বলে আমি ওর দিকে। আসলে আমি আমার দলে ঠিকই আছি।

সংবাদ সম্মেলনে একবার আইভির নাম না নেয়ার ব্যাপারে জানতে চাইলে শামীম ওসমান বলেন, তার নামের ব্যাপারটা আমার কাছে কোন বিষয় না। আমার ব্যাপারটা হল নৌকার। আমার কষ্টটা আপনাকে বুঝতে হবে। আমি আমার আদর্শের পক্ষে অবস্থান নিয়েছি। আমি আগেও ওকে ছোট বোনের মত দেখতাম এখনও তাকে ছোট বোনের মতোই দেখি।

এবার নৌকা যদি হেরে যায় সে দ্বায় শামীম ওসমানের উপর পড়বে কিনা- জানতে চাইলে তিনি বলেন, নৌকা হেরে যাওয়ার কোন সুযোগ নাই, যদি বলতে কোন কথা নাই। নৌকা জিতবেই। শামীম ওসমানের আন্ডারে বিএনপি, শামীম ওসমানের আন্ডারে হেফাজত, শামীম ওসমানের আন্ডারে আ‘লীগ। আসলে আমাকে একটা আইটেম বানানো হয়েছে, কোন না কোন কারণে আমি এখান আইটেম হয়ে আছি। এখন আর আইটেম হতে ভাল লাগে না।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.