তালেবানরা মুক্তিযোদ্ধা: ডা. জাফরুল্লাহ

আফগানিস্তানের শাসকগোষ্ঠী তা’লেবানকে মুক্তিযো’দ্ধা আখ্যা দিয়ে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, তারা ২০ বছর সা’ম্রাজ্যবাদী শক্তির বিরুদ্ধে সংগ্রাম করে ক্ষমতায় এসেছে। আর যাই হোক না কেন তা’লেবানরা মুক্তিযো’দ্ধা। তাদের ভুল-ভ্রান্তি হলে সেগুলো ধরিয়ে দেন। তাদেরকে সেইভাবে সাহায্য করেন। অকা’রণে তাদেরকে বিভ্রান্তির পথে, সাম্রা’জ্যবাদীদের দিকে ছুড়ে দেবেন না।

শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন। এর আগে সকালে আ’ফগানিস্তানে তা’লেবানরা ক্ষমতাসীন হওয়ায় নারীরা সুরক্ষিত নয়, এমন অভিযোগে মানববন্ধন করে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)। সেখানে সিপিবি নেতারা তালে’বানের সমালোচনা করে বলেন, তালেবা’নরা নারীদের ঘরে বন্দি করে রেখেছে।

তাদের অধিকার খর্ব করেছে। আজ যদি তাদের বিরুদ্ধে প্র’তিবাদ না করা হয়, তাহলে বাংলাদেশ একদিন তালে’বান রাষ্ট্রে পরিণত হবে। সিপিবি নেতাদের দেওয়া বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করে জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির মানববন্ধনে ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, আমি যখন এখানে (মানববন্ধনস্থল) এসে পৌঁছাই তখন একটা দল মূলত কমিউনিস্ট পার্টি তা’লেবান মেয়েদের অধিকার দিচ্ছে না, তার প্র’তিবাদে কথা বলছে।

আমি বলব, বন্ধুরা বিএনপির গঠনতন্ত্রে আছে শতকরা ৩৩ ভাগ নারী হতে হবে। এমন আওয়ামী লীগেও আছে। কমিউনিস্ট পার্টিতে দেন তো? আগে নিজের ঘর ঠিক করেন। নিজের ঘরে আ’গুন লাগছে, সেই আ’গুন আগে নেভান।অকারণে খালেদা জিয়াকে জামিন দেওয়া হচ্ছে না উল্লেখ করে জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, আদালতে খু’নের আ’সামিরও জামিন হয়।

এক রিকশাওয়ালা তার স্ত্রীকে হ-ত্যা করেছি’ল তার নিম্ন আদালতে ফাঁ’সির রায় হয়। যা সব আদালতেই বহাল থাকে। তবে মৃ’ত্যুদ’ণ্ডের আগ পর্যন্ত সে জামিনে ছিল। এই উদাহরণ তো আদালতই তৈরি করেছিল। তাহলে খালেদা জিয়ার কেন জামিন হবে না?

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.