তিন স্কুলের ১৩ শিক্ষার্থী ও ছয়জন শিক্ষক করোনা আক্রান্ত

ঠাকুরগাঁও সদরের বাহাদুরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঁচজনসহ হাজী পাড়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, সোনালী শৈশব বিদ্যালয়ের ১৩ শিক্ষার্থী করোনা আ’ক্রা’ন্ত হয়েছে। এদের মধ্যে চতুর্থ, পঞ্চম, ষষ্ঠ, সপ্তম, নবম ও দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী রয়েছে। নজরদারিতে রাখা হয়েছে বাকি শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকদেরও। এছাড়া জেলার বিভিন্ন বিদ্যালয়ে ছয় শিক্ষক ক’রোনা আ’ক্রা’ন্ত হয়েছেন।

বাহাদুরপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির দুই ও পঞ্চম শ্রেণির তিন শিক্ষার্থীর করোনা উ’পসর্গ দেখা দেয়। গত সোমবার নমুনা দেয়া হলে মঙ্গলবার তাদের করোনা শনা’ক্ত হয়। এই খবরে জেলা প্রশাসকের নির্দেশে ওই বিদ্যালয়ের দুই শ্রেণির ক্লাস বন্ধের ঘোষণা দেয়া হয়।

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, করো’না আ’ক্রা’ন্তদের শ্রেণির ক্লাস বন্ধ রাখা হয়েছে। তাদের চিকিৎসাসেবাও দেয়া হচ্ছে। এদিকে, ঠাকুরগাঁও সরকারি শিশু পরিবারে মোট ৬৫ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। এ ঘটনার পর ওই ১৩ জন শিক্ষার্থীকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে বাকি শিক্ষার্থীদের নমুনা নিয়ে করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। আজ শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে তার রিপোর্ট দেয়ার কথা রয়েছে।

অপরদিকে, জেলার বিভিন্ন বিদ্যালয়ের ছয় শিক্ষকও করো’নায় আ’ক্রা’ন্ত হয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছে জেলা শিক্ষা অফিস। এদিকে ভয় না পেয়ে বিদ্যালয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দেন ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. রকিবুল আলম চয়ন। তিনি বলেন, লক্ষণ দেখা দিলে সাথে সাথে করোনা পরীক্ষা করতে হবে।

ঠাকুরগাঁওয়ের সিভিল সার্জন ডা. মাহফুজার রহমান সরকার জানান, আক্রান্তরা সবাই ভালো আছে। তাদের চিকিৎসা চলছে। দেড় বছর বন্ধের পর গত ১২ সেপ্টেম্বর থেকে চলছে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণিতে সরাসরি ক্লাস।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.