দুর্নীতির বিরুদ্ধে খুতবা দিয়ে চাকরি হারালেন মসজিদের খতিব

সারাদেশে চলছে সরকারের দুর্নীতি বিরোধী অভিযান। বিভিন্ন তরফ থেকে গড়ে উঠছে দুর্নীতির বিরুদ্ধে সচেতনতা। তবে দুর্নীতির বিরুদ্ধে বলতে গিয়ে নিজের চাকরিই হারালেন মসজিদের একজন খতিব। ঢাকার একটি মসজিদে দুর্নীতিগ্রস্থ সরকারি চাকরিজীবীদের নিয়ে খুতবা (বক্তব্য) দেয়ায় চাকরি চলে যাওয়ার এমন অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা যায়, মাস খানেক আগে মিরপুর-১ এ অবস্থিত টোলারবাগ খানকা-ই-মশুরিয়া জামে মসজিদে এ ধরণের ঘটনা ঘটেছে।এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে মসজিদটির খতিব (সাবেক) সোলায়মান ফারুকী মোবাইল ফোনে বলেন, ‘মোনাফিকের বিরুদ্ধে, দুর্নীতির বিরুদ্ধে বক্তব্য দেয়ায় মসজিদ কমিটির লোকজন আমাকে সরে যেতে বলেন। আমিও সরে যাই।’

কি ধরণের বক্তব্য সেই দিন দেয়া হয়েছিল জানতে চাইলে ফারুকীর দাবি, ‘যারা সরকারি চাকরি করে তারা চাকরি নেয়ার সময় কাগজে সাইন করে, কমিটমেন্ট করে যে এই দেশে দুর্নীতি করবো না, দেশের স্বার্থে কাজ করবো। কিন্তু তারা সে কমিটমেন্ট রাখেন না, দেশের সম্পদ বিনষ্ট করেন। এমন খুতবা দিয়েছিলাম।’

এ সময় তিনি বলেন, ‘যারা এই সমস্ত অঙ্গীকার ভাঙেন তারা আসলে মোনাফিকি করেন। তারা মোনাফেকের কাতারে পড়েন।’ সোলায়মান ফারুকী ২০১০ সালের শেষের দিকে মসজিদটিতে খতিবের কাজ শুরু করেন।এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই এলাকার এক বাসিন্দা বলেন, ‘সরকার তো চায় দুর্নীতিমুক্ত দেশ গড়তে। কে না চায় সমাজ দুর্নীতিমুক্ত হোক। কিন্তু এমন ঘটনা আমাদের অবাক করে দিয়েছে।’

এ বিষয়ে কথা বলতে টোলারবাগ মসজিদ কমিটির সভাপতি আব্দুল কাদেরের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তিনি প্রথমবার ফোন ধরে জানান, পরে কথা বলবেন। তবে পরে বারবার তার সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করা হলেও তিনি আর ফোন ধরেননি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*