দেখেনিন আজ ব্যাট হাতে যত রান করলেন আশরাফুল

আজ ডিপিএলে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের মুখোমুখি হয়েছে শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাব। আগে ব্যাট করে রবিউল ইসলাম রবি ও তৌহিদ হৃদয়ের ব্যাটে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৩৭ রানের পুঁজি পেয়েছে শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাব। জবাবে ব্যাট করছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব।

মাঝারি লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই সাজঘরে ফেরেন অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ আশরাফুল। তিনি মাত্র ৪ রান করে হাসান মুরাদের শিকার হয়েছেন। বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি সৈকত আলী। তিনি ৯ রান করে তানভীর ইসলামের বলে স্টাম্পিং হন।

এর আগে এই ম্যাচে টসে জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে শাইনপুকুরকে দারুণ সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার সাব্বির হোসেন ও তানজিদ হাসান তামিম। শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক ব্যাটিং শুরু করেন দুজনে। নাসির হোসেনের করা প্রথম ওভারের শেষ বলে দারুণ এক ছক্কা দিয়ে ভালো কিছুর ইঙ্গিত দিয়েছিলেন সাব্বির।

অন্যদিকে তানজিদ ডাউন দ্য উইকেটে গিয়ে সালাউদ্দিন শাকিলকে একটি চার মেরে ভালো শুরু করেন। এরপর দুজনে দেখেশুনে খেলে ৭.২ ওভারেই শাইনপুকুরের রান পাঞ্চাশে নিয়ে যান বিনা উইকেটে। সাব্বির ব্যক্তিগত ২১ রানে জিয়াউর রহমানের বলে ফলো থ্রুতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন।

এক প্রান্ত আগলে রাখা তানজিদ ব্যক্তিগত ৩৪ রানে এনামুল হকের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে সাজঘরে ফেরেন। ব্যাট হাতে ব্যর্থ হয়েছেন শাইনপুকুরের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন। তিনি মাত্র ১ রান করে জিয়াউরের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে আউট হয়েছেন।

চতুর্থ উইকেটে তৌহিদ হৃদয় ও রবিউল ইসলাম রবি মিলে প্রাথমিক বিপর্যয় সামাল দেন। বড় রানের দিকে এগোচ্ছিলেন হৃদয়। ব্যক্তিগত ২৮ রানে তিনি এবাদত হোসেনের বলে ডাউন দ্য উইকেটে খেলতে গিয়ে লাইন মিস করে বোল্ড হয়েছেন।এরপর এবাদতের গতিতে পরাস্ত হয়ে বোল্ড হয়েছেন শাইনপুকুরের আরেক ব্যাটসম্যান সুমন খান।

তিনি আউট হয়েছেন ব্যক্তিগত ৯ রানে। শেষ পর্যন্ত ৩৪ রানে অপরাজিত থেকে শাইনপুকুরকে লড়াইয়ের পুঁজি এনে দেন রবিউল। ৫ রান করে তাঁর সঙ্গী ছিলেন রবিউল হক। এদিকে, নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচের মধ্যে একটিতে জয় পেয়েছে শেখ জামাল। অন্যদিকে দুই ম্যাচ খেলে দুটিতেই হেরেছে শাইনপুকুর।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.