দেশে বেড়েছে সংক্রমণ, বাড়িভিত্তিক লকডাউন শুরু

নোয়াখালীতে গত মাসের তুলনায় চলতি মাসে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় বাড়িভিত্তিক লকডাউন শুরু করেছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। সোমবার (৩১ মে) সকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. মাসুম ইফতেখার।

সিভিল সার্জন বলেন, জেলা সদরসহ প্রতিটি উপজেলায় করোনা রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। ভাইরাসটির সংক্রমণ রোধে আমরা বাড়িভিত্তিক লকডাউন শুরু করেছি। এ লক্ষ্যে প্রতিটি উপজেলার ইউনিয়নভিত্তিক কমিটি করা হয়েছে।

যে বাড়িতে করোনাভাইরাসের রোগী শনাক্ত হবে সেই বাড়ি লকডাউন করা হবে। তিনি আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় তিনটি ল্যাবে ৩৪৪টি নমুনা পরীক্ষায় ১০১টি পজিটিভ ও ২৪৩টির ফলাফল নেগেটিভ এসেছে। জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৮ হাজার ৫৩৬ জন।

যার মধ্যে সর্বোচ্চ আক্রান্ত নোয়াখালী সদরে ২ হাজার ৮৮৯ ও বেগমগঞ্জে এক হাজার ৮৩০ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন ১২১ জন, আর সুস্থ হয়েছেন ৬ হাজার ৩৭২ জন রোগী। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৭৪ দশমিক ৬৫ ভাগ। আইসোলেশনে আছেন ২ হাজার ৪৩ জন এবং কোভিড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৪৩ জন রোগী।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.