দ্বিতীয় দিনও স্বস্তিতে কাটল টাইগারদের

স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে প্রথম দিনের মতো দ্বিতীয় দিনেও তৃপ্তির ঢেকুর তুলল টাইগাররা। রোববার (২ জানুয়ারি) কিউইদের ৩২৮ রানে আটকে দেওয়ার পর ব্যাট হাতেও ভালো করেছে সফরকারীরা।

এদিন বে ওভালে ব্যাট হাতে দারুণ শুরু করেন সাদমান ইসলাম। তাকে ভালোভাবে সঙ্গ দেন অভিষিক্ত মাহমুদুল হাসান জয়। দেখেশুনে খেলে ভালোভাবেই এগোচ্ছিলেন তারা। তবে চা বিরতির আগে ওয়াগনারের শিকার হন সাদমান। সাজঘরে ফেরার আগে তিনি করেন ২২ রান।

সাদমান ফিরলেও আরেক উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান মাহমুদুল হাসান ও তিনে নামা নাজমুল হোসেন শান্ত বাংলাদেশকে এগিয়ে নিচ্ছিলেন। তবে নাজমুলকেও ৬৪ রানে সাজঘরে ফেরান ওয়াগনার। শেষ পর্যন্ত ২ ইউকেট হারিয়ে ১৭৫ রান করে দিন শেষ করেছে বাংলাদেশ।

এর আগে ৫ উইকেটে ২৫৮ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিন শুরু করে নিউজিল্যান্ড। তবে মিরাজ-শরীফুলের বোলিং নৈপুণ্যে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় ব্ল্যাকক্যাপরা। দ্বিতীয় দিন মাত্র ৭০ রান যোগ করে ৩২৮ রানে থামে স্বাগতিকদের ইনিংস। মিরাজ ও শরীফুল দুজনই নেন ৩টি করে উইকেট।

প্রথম দিন শনিবার (১ জানুয়ারি) এবাদতের বলে ব্যাটের ভেতরের কোনায় লেগে বোল্ড হন টম ব্লানডেল। তাতেই দিনের খেলা সমাপ্তি ঘোষণা হয়। ফলে ২.৩ ওভার বাকি রেখেই স্বস্তি নিয়ে দিন শেষ করে টাইগাররা।

মাউন্ট মঙ্গানুইয়ের বে ওভালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে টসে জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় টাইগার অধিনায়ক মুমিনুল হক। সাত ব্যাটসম্যানের সঙ্গে তিন পেসার ও একমাত্র স্পিনার নিয়ে সাজানো হয় বাংলাদেশের একাদশ।

বাংলাদেশ একাদশ: সাদমান ইসলাম, মাহমুদুল হাসান জয়, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হক (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস (উইকেটরক্ষক), ইয়াসির আলী চৌধুরী, মেহেদী হাসান মিরাজ, তাসকিন আহমেদ, এবাদত হোসেন এবং শরিফুল ইসলাম।

নিউজিল্যান্ড একাদশ: টম ল্যাথাম (অধিনায়ক), উইল ইয়ং, ডেভন কনওয়ে, রস টেলর, হেনরি নিকোলস, টম ব্লানডেল (উইকেটরক্ষক), রাচিন রবীন্দ্র, কাইল জেমিসন, টিম সাউদি, নেইল ওয়াগনার ও ট্রেন্ট বোল্ট।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.