নারিন-ফার্গুসনদের দাপটে সহজ টার্গেট পেল কলকাতা

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) কলকাতা নাইট রাইডার্সের সুনীল নারিন ও লকি ফার্গুসনদের বোলিং তোপে নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৯ উইকেট হারিয়ে ১২৭ রান করতে পেরেছে দিল্লি ক্যাপিটালস। জয়ের জন্য ১২৮ রান করতে হবে কলকাতাকে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে পৃথ্বির শর পরিবর্তে নামা স্টিভ স্মিথকে নিয়ে ভালো জুটির আশ্বাস জাগাতে থাকেন ওপেনার শিখর ধাওয়ান। তবে ধাওয়ানই ফিরে যান ৩০ বলে ২৪ রান করে। এরপর শ্রেয়াস আয়ার মাত্র ৫ বল খেললেও রান করতে পেরেছেন মাত্র ১। তাকে ফেরান সুনীল নারিন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ অলরাউন্ডার নিয়েছেন ললিত যাদবের উইকেটও। সর্বসাকুল্যে ৪ ওভারে দুই উইকেট নিতে তিনি খরচ করেছেন ১৮ রান। তার আগে স্টিভ স্মিথ ৩৪ বলে ৩৯ রান করে বোল্ড হন লকি ফার্গুসনের বলে। ফার্গুসন শিখর ধাওয়ানের উইকেটও নেন। দুই ওভারে কিউই বোলার দিয়েছেন ১০ রান।

শিমরন হ্যাটমায়ারকে প্যাভিলিয়নে ফেরান ভেঙ্কটেস আয়ার। ফলে দারুণ চাপে পড়ে দিল্লির ব্যাটসম্যানরা। সেই চাপ আর সামাল দিতে পারেননি কেউ। যদিও মাঠে অনেকক্ষণ টিকে ছিলেন উইকেটরক্ষক ও অধিনায়ক রিশভ পন্ত।
পন্ত শেষ পর্যন্ত রান আউটের শিকার হন ৩৬ বলে ৩৯ রান করে। ললিত ও অক্ষর প্যাটে দুজনের কেউই রানের খাতা খুলতে পারেননি।

বাকিদের মধ্যে রবিচন্দ্রন অশ্বিন ৯ ও হ্যাটমায়ার ৪ রান করেন। কলকাতার হয়ে ২টি করে উইকেট নেন ফার্গুসন, নারীন ও আয়ার। এই ম্যাচ দিয়েই কলকাতার হয়ে অভিষেক হয়েছে কিউই পেসার টিম সাউদির। ইনজুরিতে ভোগা উইন্ডিজ অলরাউন্ডার আন্দ্রে রাসেলের পরিবর্তে তাকে খেলানো হচ্ছে। যদিও একাদশ প্রকাশ করার আগে মনে করা হচ্ছিল সাকিবকেই দেখা যাবে এগারোজনের একজন হিসেবে।

চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে ম্যাচেই চোটে পড়েন ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার আন্দ্রে রাসেল। আর তারপরই জানা যায়, রাসেলের চোটে দলে সুযোগ পেতে পারেন সাকিব। ক্রিকেট বিষয়ক ওয়েবসাইট ক্রিকবাজও জানায়, রাসেলের জায়গায় ফিরতে পারেন সাকিব। তাদের করা সম্ভাব্য একাদশেও রাখা হয় বিশ্বসেরা এই অলরাউন্ডারকে।

আইপিএলের চলতি আসরের প্রথম পর্বে সাত ম্যাচ খেলেছিল ইয়ন মরগ্যানের কেকেআর। সেই সাত ম্যাচের চারটিতেই একাদশের বাইরে বসে থাকতে হয়েছিল সাকিব আল হাসানকে। চিত্র বদলায়নি আরব আইপিএলের আরব আমিরাত অংশেও।

এ পর্বে এখনো অবধি কলকাতা তিনটি ম্যাচ খেলে ফেললেও একটি ম্যাচেও মাঠে নামতে পারেননি সাকিব। এর আগে সাকিবের জায়গায় নিজের অবস্থান মোটামুটি পাকাপোক্ত করেছেন ক্যারিবীয় অলরাউন্ডার সুনীল নারিন। গত ম্যাচে ম্যাচসেরাও হয়েছেন এই ক্যারিবিয়ান। যদিও কলকাতার আগের ম্যাচে খুব একটা সফল ছিলেন না নারিন।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.