পপির অভিযোগ নিয়ে মুখ খুললেন জায়েদ খান

আগামীকাল শুক্রবার (২৮ জানুয়ারি) অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের নির্বাচন। এতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে দুটি প্যানেল। একটিতে আছেন ইলিয়াস কাঞ্চন ও নিপুন; অন্যটিতে মিশা সওদাগর ও জায়েদ খান।

এদিকে জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা পপি অন্তরালে থাকার পর হঠাৎ গতকাল (২৬ জানুয়ারি) একটি ভিডিও বার্তার মাধ্যমে সামনে আসেন। সেখানে তিনি নিজের আড়ালে থাকার বিষয়ে তেমন কিছু না বললেও চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির গত কমিটির বিরুদ্ধে একগাদা অভিযোগ তুলেছেন।সেখানে পপি জানান, শিল্পী সমিতি থেকে নানাভাবে অপমানিত হয়েছেন তিনি।

এমনকি তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত জনপ্রিয় এই অভিনেত্রীকে সদস্যপদ বাতিলের চিঠি পর্যন্ত দেওয়া হয়েছিল। পপি তার অভিযোগে নাম উল্লেখ করেননি। তবে তার অভিযোগের তীর যে সংগঠনটির গত দুই মেয়াদের সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খানের দিকে ছিল, বুঝতে বাকি নেই কারোর।

প্রসঙ্গক্রমে তিনিও মুখ খুললেন বিষয়টি নিয়ে।বৃহস্পতিবার (২৭ জানুয়ারি) এফডিসিতে সাংবাদিকদের কাছে এই জায়েদ খান বলেন, ‘‘শেক্সপিয়ার একটা কথা বলে গেছেন, ‘মানুষের সঙ্গে মারামারি করে শত্রু বাড়ানোর দরকার নাই। কিছু ভালো কাজ করবে, শক্র এমনিতেই তৈরি হয়ে যাবে।’ আমার যদি এত দোষ থাকে তবে সেটা নির্বাচনের দুই-চার বছর আগে বের হওয়া উচিত ছিল।

নির্বাচনের একদিন আগে বের হচ্ছে কেন? তারমানে আপনি আমার বিরুদ্ধে কাউকে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করছেন।’’ পপির অভিযোগ প্রসঙ্গে এই নেতা বলেন, ‘‘দ্বিতীয় কথা হচ্ছে, তার (পপি) সঙ্গে আমার খুব ভালো সম্পর্ক ছিল। তার সঙ্গে একশ’র অধিক স্টেজ শো করেছি, একই প্যানেলে নির্বাচন করেছি। তার মতানৈক্য বা মতাদর্শ থাকতেই পারে।

সেটা নিজেদের ফোরামে বলাই ভালো। তাকে খুঁজেই পাচ্ছি না। তার মোবাইল বন্ধ। হঠাৎ করে একদিন আগে তাকে দিয়ে কিছু বলানো হচ্ছে। যাক বলেছে। আপনারা তো বলেন আমি আলোচিত মানুষ। হয়তো এ কারণে বলেছে। তার আক্ষেপ-অভিযোগ থাকলে সামনে এসে বললেই ভালো হতো। একটা কথা মনে রাখবেন, ‘যে গাছে ফল হয় বেশি, সেখানে ঢিলও পড়ে বেশি। আর অন্য কেউ তো বলেনি, পপি বলেছেন। আমি এনজয় করছি।’’

Sharing is caring!