পাকিস্তানের পতাকা ওড়ানো বাংলাদেশিদের আইনের আওতায় আনা হবে

মিরপুরের শের ই বাংলা স্টেডিয়ামে চলছে বাংলাদেশ-পাকিস্তানের মধ্যে ৩ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। সিরিজের দুটি ম্যাচ শেষ হয়েছে ইতোমধ্যে। তবে যে জিনিসটি বেশ দৃষ্টিকটু লেগেছে সবার কাছে সেটি, বাংলাদেশের কিছু মানুষ পাকিস্তানের পতাকা হাতে সমর্থন দেওয়া।

গত শুক্রবার মিরপুর স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ-পাকিস্তান ম্যাচ চলাকালীন কিছু বাংলাদেশি পাকিস্তানের সমর্থন করে গলা ফাটান ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ বলেও।যে দেশের বিপক্ষে মুক্তিযুদ্ধ করে ত্রিশ লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে স্বাধীন করেছিল দেশ, সেই দেশের কিছু মানুষ যখন পাকিস্তানের পতাকা হাতে

ওই দেশটিকে সমর্থন জোগায় তখন সেটি একজন বাংলাদেশি হিসেবে বিবেককে নাড়া দেবেই। এ বিষয়টি সম্পর্কে অবগত হয়েছেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।আজ রোববার (২১ নভেম্বর) দুপুরে সচিবালয়ে এক অনুষ্ঠানে বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন করা হয় মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হককে।

বিষয়টিকে দুর্ভাগ্যজনক উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘এটা আসলে দুর্ভাগ্যজনক। একটা দলকে যেকেউ সাপোর্ট করতে পারে। কিন্তু বাংলাদেশের বিপক্ষে খেলার দিন অন্য দলকে সাপোর্ট করা শোভনীয় মনে হবে না।

আপনারা বিষয়টি সরকারের দৃষ্টিগোচর করেছেন। আমরা আবশ্যই পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখবো এবং আইনগত ব্যবস্থা অবশ্যই নেব। তারা বাংলাদেশের নাগরিক কি না, আমিও ঠিক জানি না। শুনলাম, আমরা বসে দেখবো ইনশাল্লাহ।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.