পাকিস্তানে না গেলে যে বড় শাস্তি ভোগ করতে হবে মুশফিককে!

সম্প্রতি বিসিবি’র কাছ থেকেই হঠাৎ একটা মেসেজ পান মুশফিকুর রহিম। যেখানে তাকে একটা শর্ত জুড়ে দেওয়া হয় যে, তৃতীয় দফায় পাকিস্তান সফরে না গেলে ভোগ করতে হবে অন্যরকম একটা শাস্তি।তাতে যেন মুশফিক পড়ে গেলেন উভয়সংকটে। তাকে ছাড়াই এরিমধ্যে দুইবার পাকিস্তান গেল বাংলাদেশ দল। তিনি যাবেন না সেটা আগেই জানিয়েছেন। কারণ তার পরিবার তাকে পাকিস্তানে যেতে দিচ্ছেন না। এখন কথা হলো, তৃতীয় দফাও কী মুশফিক তার আগের ‘না’ এর মধ্যে থাকবেন। না-কি সেটা ‘হ্যাঁ’ হবে।

অবস্থা যা দাঁড়িয়েছে তাতে মনে হয় মুশফিককে এবার পাকিস্তান সফরে যেতেই হবে। না গেলে ভোগ করতে হতে পারে বড় শাস্তি। শাস্তিটা হলো এখন যদি মুশফিক বলে যে, আমি পাকিস্তানে যাবো না, তাহলে কিন্তু ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টেও রাখা হবে না তাকে। আর যদি বিসিবির টিম ম্যানেজমেন্টের এই শর্তে রাজি হন মুশফিক, অর্থাৎ পাকিস্তান যাওয়ার জন্য ‘হ্যাঁ’ বলেন তাহলে হোম টেস্টেও রাখা হবে মুশফিককে।

এরিমধ্যে পরিষ্কার একটা ইঙ্গিত মিলেছে জাতীয় দলের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর কাছ থেকেও। তিনি বলেছেন, মুশফিকের কারণে তিন টেস্টে তিনবার দলে পরিবর্তন করার পক্ষে নন তিনি। কোচের এই সিদ্ধান্তের প্রতি সমর্থন আছে জাতীয় দল নির্বাচকদেরও।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিসিবির নির্বাচক প্যানেলের একজন বলেন,

‘বাংলাদেশ দল দুবার পাকিস্তানে খেলে এসেছে। কারও কোনো সমস্যা হয়নি। সতীর্থদের কথা ভেবে হলেও মুশফিক গেলে ভালো করবে আমি মনে করি। টেস্ট দলটা খুবই দুর্বল হয়ে গেছে। সেখানে বারবার পরিবর্তন করা হলে কেউই সেটেল হতে পারবে না। আমি মনে করি, যাকে পাকিস্তান সফরের জন্য নির্বাচন করা হবে তাকেই যেতে হবে।’এখন দেখার অপেক্ষ মুশফিক কোনটা বেছে নেন। পাকিস্তান সফর না শাস্তি!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*