প্রতিশোধ নিতে চায় ভারত

২০১৯ সালের ১৫ই অক্টোবর, ভারতের যুবভারতীয় স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে ৪২ মিনিটেই সাদ উদ্দিনের গোলে এগিয়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। নিশ্চিত জয়ের চিন্তা নিয়েই এগচ্ছিল জামাল ভুইয়ারা কিন্তু ৮৮ মিনিটে আদিল খানের গোলে কোনো মতে হার এড়িয়েছিল ভারত।

প্রায় ২০ মাস পর আবারো মুখোমুখি হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ও ভারত। প্রথম লেগের কন্ডিশন এক না হলেও প্ল্যাটফর্ম একই, বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব। আগামী ৭ই জুন কাতারের জসিম বিন হামাদ স্টেডিয়ামে লড়বে প্রতিবেশি এই দুই দেশ। তবে প্রথম লেগের সেই ড্রয়ের প্রতিশোধ দ্বিতীয় লেগে নিতে চায় সুনিল সেত্রীরা।

এছাড়া বাংলাদেশকে হারিয়ে এশিয়া কাপ খেলার স্বপ্নও বাচিয়ে রাখতে চান ইগর স্টিম্যাক শিষ্যরা। নিজেদের শেষ ম্যাচে শক্তিশালি কাতারের কাছে ১-০ গোলে হেরেহে ভারত যদিও অধিকাংশ সময়েই দশ জন নিয়ে খেলেছিল সুনিল সেত্রিরা।

কাতারের বিপক্ষে ম্যাচের পরেই ভারতীয় কোচ ইগর স্টিম্যাক বাংলাদেশকে হারানোর পরিকল্পনা শুরু করে দিয়েছেন বলে জানা গেছে। যুব ভারতীয় স্টেডিয়ামের সেই ড্র নাকি ভারতকে এখনো পোড়ায়। তাই যেভাবেই হোক এই ম্যাচে বাংলাদেশকে হারাতে চায় ভারত।

আফগানদের বিপক্ষে পিছিয়ে পড়েও তপু বর্মনের শেষ মুহুর্তের গোলে ড্র করে বাংলাদেশ ফলে জামাল ভুইয়াদের নিয়ে ভারতকে বাড়তি সতর্কর্তা অবলম্বন করতে হচ্ছেই। যদিও প্রথম লেগে বাংলাদেশের হয়ে গোল করা সাদ উদ্দিন ইঞ্জুরির কারনে নেই বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের বাকি ম্যাচ গুলাতে।

ফিফা র‍্যাংকিংয়ে বাংলাদেশের বর্তমান অবস্থান ১৮৪, অন্যদিকে ভারতের অবস্থান ১০৫। ভারত ফিফা র‍্যাংকিয়ে এগিয়ে থাকলেও মাঠের পার্ফরমেন্স প্রায় কাছাকাছি এমনটা জানিয়েছিলেন বাংলাদেশ অধিনায়ক জামাল ভুইয়া। দেশেই প্রস্তুতি চলমান থাকা অবস্থায় জামাল আরো বলেছিলেন,

“ভারতের সাথে নরমালি মোটিভেশন আসবে। এটা ব্যাপার না। কারণ আমরা কাছাকাছি থাকি, ওদের সাথে হিস্ট্রি আছে। সবাই জিততে চায় ওদের সাথে। এছাড়া কলকাতার মানুষ ও আমাদের ভাষা বাংলা একই। তবে গোল করতে হবে, গোল না করলে আপনি জিততে পারবেন না।” আফগানদের বিপক্ষে আত্মবিশ্বাসী এক বাংলাদেশের দেখা মিলেছিল।

তাই বাংলার ফুটবল প্রেমীদের প্রত্যাশা ভারতের বিপক্ষেও দারুন এক ম্যাচ উপহার দিবে জামাল ভুইয়ারা। আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ। আগামী ৭ই জুন কাতারের জসিম বিন হামাদ স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রাত ৮ টায় শুরু হবে ম্যাচটি, সরাসরি দেখতে পারবেন টি স্পোর্টস ও জিটিভির পর্দায়।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.