প্রত্যাবর্তনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের দিকে তাকিয়ে বিসিবি

করোনার পর মাঠে ফিরতে জোর চেষ্টা করছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। পাকা কথা হয়েছিল শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের সাথে। তবে বাধাবিপত্তির কারণে ভেস্তে যেতে বসেছে লঙ্কা সফর। তেমনটা হলে চলতি বছর সূচিতে আর কোন আন্তর্জাতিক ম্যাচ নেই বাংলাদেশ দলের। এজন্য ওয়েস্ট ইন্ডিজের দিকে তাকিয়ে বিসিবি।

কারোনার কারণে শুরু থেকেই সাবধানী টাইগার বোর্ড। সব শঙ্কা মাথায় নিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রত্যাবর্তনের জন্য চেষ্টার ত্রুটি রাখেনি বিসিবি। আগামী মাসে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে চলতি মাসেই দেশ ছাড়ার কথা ছিল। তবে নিয়মের বেড়াজালে বাংলাদেশকে আটকে দিয়েছে শ্রীলঙ্কা।

এই প্রসঙ্গে বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান আকরাম খান জানান, ‘শ্রীলঙ্কার সাথে অনেক দিন ধরে আমাদের আলাপ আলোচনা চলছিল। যে দুই-তিনটা ইস্যু ছিল সেগুলো আমরা বারবার ইমেইলের মাধ্যমে জানতে চেয়েছি। ওরা জানাবে বলে শেষের দিকে এসে সিদ্ধান্ত দিয়েছে যা আমাদের জন্য কঠিন।’

‘২০-২৫ দিন আগে যাওয়ার যে পরিকল্পনা করেছিলাম এটার কোন মূল্য হয়না। কোন কাজে আসবেনা। এটা আমাদের জন্য খুবই দুঃখজনক।’– যোগ করেন তিনি।

শ্রীলঙ্কার দেওয়া এতো শর্ত মেনে সেখানে খেলতে যাওয়া সম্ভব নয় বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন বিসিবি সভাপতি। শেষপর্যন্ত এই সিদ্ধান্ত বহাল থাকলে সহসা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট প্রত্যাবর্তন হচ্ছে না টাইগারদের। অন্তত এফটিপির সূচি তেমন কথায় বলছে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার জন্য বিসিবিকে অপেক্ষা করতে হবে চলতি বছরের পুরো সময়টা। আগামী বছরের গোড়ার দিকে অর্থাৎ জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারি মাসে ৩টি টেস্ট, ৩টি ওয়ানডে ও ২টি টি-টোয়েন্টি খেলতে বাংলাদেশ সফরে আসার কথা আছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দলের। আপাতত সেদিকেই দৃষ্টি বোর্ডের।

আকরাম জানান, ‘এখন আমরা শ্রীলঙ্কাকে অনুরোধ করেছি। তারা যদি মানে, তবে যেতে পারি, নাহয় অন্য পরিকল্পনা আছে। আমরা ঘরোয়া লিগ শুরু করবো। এরপর তো আগামী জানুয়ারিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ আসার কথা আছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *