বছরের প্রথম ম্যাচেই পিএসজির বড় জয়

ইনজুরির কারণে আগে থেকেই নেই নেইমার জুনিয়র। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ছিটকে গেছেন লিওনেল মেসিও। ফলে নতুন বছরে প্যারিস সেইন্ট জার্মেইর গুরুদায়িত্ব ছিল তরুণ তারকা কাইলিয়ান এমবাপের কাঁধে। সেটি কী দারুণভাবেই না পালন করেন এ ফরাসি ফরোয়ার্ড।

ফ্রেঞ্চ কাপে সোমবার রাতে নতুন বছরের প্রথম ম্যাচে ভানেসের মুখোমুখি হয়েছিল পিএসজি। এই ম্যাচে মেসি-নেইমার ছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ আরও কয়েকজন খেলোয়াড়ের অনুপস্থিতে দলকে পথ দেখিয়েছেন এমবাপে। তার হ্যাটট্রিকে ৪-০ গোলের সহজ জয়ে শেষ ষোলোতে উঠে গেছে পিএসজি।

প্রতিপক্ষের মাঠে খেলতে গিয়ে পুরো ম্যাচ জুড়েই ছিল পিএসজির আধিপত্য। ম্যাচের দুই-তৃতীয়াংশ সময় বল দখলে রেখে ২৫টি শটের মধ্যে অন্তত ১২টি লক্ষ্যে রেখেছে মাউরিসিও পচেত্তিনোর শিষ্যরা। কিন্তু চারটির বেশি গোল পায়নি তারা। ভানেস তিনট শট লক্ষ্যে রেখেও সফল হয়নি।

প্রথম গোলের জন্য পিএসজিকে অপেক্ষা করতে হয়েছে ম্যাচের ২৮ মিনিট পর্যন্ত। নুনো মেন্ডেসের কর্নার থেকে জোরালো হেডারে দলকে এগিয়ে দেন প্রেসনেল কিম্পেম্বে। এরপর প্রথমার্ধ তো বটেই, পরের ত্রিশ মিনিটেও আর গোলের দেখা পায়নি পিএসজি।

দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে ম্যাচের ৫৯ মিনিটে স্কোরলাইন ২-০ করেন এমবাপে। বাকি দুই গোল করেন ৭১ ও ৭৬ মিনিটের মাথায়। হ্যাটট্রিক করা গোলের মাধ্যমে পিএসজির হয়ে ১৫০ গোলের মাইলফলক ছুঁয়েছেন এমবাপে। এক গোলের পাশাপাশি এমবাপের প্রথম গোলে এসিস্টও করেছিলেন কিম্পেম্বে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.