বল খাবেন না, ক্ষুধা লাগলে খাবার খান!

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) মানেই ধুম-ধারাক্কা ব্যাটিং আর চার-ছক্কার ফুলঝুড়ি। কিন্তু গত বুধবারের (২২ সেপ্টেম্বর) ম্যাচে দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে সেরকম কোনো নিবেদনই দেখাতে পারেননি সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ব্যাটসম্যানরা। সেই ম্যাচে ডেভিড ওয়ার্নার-কেন উইলিয়ামসনদের ব্যাটিং বিশ্লেষণ করে আশাহত হয়েছেন বীরেন্দর শেবাগ।

তাদের ধীরগতির ব্যাটিংয়ে মন ভরেনি ভারতের সাবেক ওপেনারের। উপহাস করে হায়দরাবাদ দলকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেছেন, ‘বল না খেয়ে, খাবার খাও’!। সেই ম্যাচে প্রথম ইনিংসে ব্যাটিং করে হায়দরাবাদ। যেখানে পুরো বিশ ওভার ব্যাট করে নয় উইকেট হারিয়ে ১৩৪ রান তুলেছে তারা।

তাদের এমন মন্থর গতির ব্যাটিং দেখে শেবাগ বলেন, ‘টি-টোয়েন্টিতেও বল খাওয়া যায়? বল খাবেন না। ক্ষুধা লাগলে খাবার খান।’ শেবাগের উপদেশ, ভালো কিছু করতে হায়দরাবাদের ব্যাটিং পরিকল্পনায় পরিবর্তন আনতে হবে। তিনি মনে করেন, তাদের ব্যাটসম্যানরা বলের গুণাগুণ অনুযায়ী ব্যাটিং করতে পারেনি।

তাদের আরও বেশি আক্রমণাত্মক খেলা উচিত ছিল। তিনি বলেন, ‘হার্শাদ মেহতা (ভারতের স্টক মার্কেটের পরিচিত ব্যক্তিত্ব) বলেছিলেন, বাজার হোক বা ক্রিকেট সবচেয়ে বড় ঝুঁকি হচ্ছে কোনো ঝুঁকি না নেওয়া। কিন্তু হায়দরাবাদ এতটাই মন্থর গতিতে খেলছিল, বলও তাদের বলছিল মার, আমাকে মার!’

হায়দরাবাদের ব্যাটসম্যানরা পিচে রানের গতি বাড়াতে পারেনি সেখানে দুর্দান্ত ছিল দিল্লির ব্যাটসম্যানরা। বিশেষ করে শ্রেয়াস আইয়ার ও ঋষভ পান্ত পুরো ইনিংসজুড়ে সাবলীল ব্যাটিং করেছেন। দিল্লির ব্যাটিং প্রসঙ্গে শেওয়াগ বলেন, ‘দিল্লি মাত্র ১৭.৫ ওভারে লক্ষ্য তাড়া করেছে। পান্ত ২১ বলে ৩৫ রান করেছে আর আইয়ার ৪৭ রানে অপরাজিত ছিল। হায়দরাবাদ আবারও একবার তাদের কতৃপক্ষের জন্য বাজে সময় নিয়ে আসল।’

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.