বাংলাদেশকে হ্যাঁ, পাকিস্তানে অনীহা!

এবার পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে আগামী ২৪ আগস্ট বাংলাদেশ সফরে আসার কথা নিউজিল্যান্ড দলের। তারপরই কিউইদের পাকিস্তান সফর করার কথা। সেখানে তিনটি ওয়ানডে ও তিনটি টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলে সরাসরি বিশ্বকাপে যাবে নিউজিল্যান্ড দল, এমনই পরিকল্পনা ছিল।

কিন্তু পাকিস্তানের পাশের দেশ আফগানিস্তানে যা ঘটছে, এরপর পাকিস্তান সফরের জন্য ঘোষিত নিউজিল্যান্ড দলের কয়েকজন ক্রিকেটারের মনে ঢুকেছে তালেবান-ভীতি। তাই বাংলাদেশে টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার পর পাকিস্তান যেতে তাদের অনীহা।

এ ব্যাপারে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট প্লেয়ার্স অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান হিথ মিলস বলেছেন, ‘সব ঠিকঠাক এগোচ্ছিল। কিন্তু গত কয়েক দিনে আফগানিস্তানে যা হয়েছে, তা দুঃখজনক। আর অনেকেই এ ব্যাপারে প্রশ্ন করছেন। (আফগানিস্তানের পরিস্থিতির নিরিখে পাকিস্তানের) নিরাপত্তাব্যবস্থা কেমন থাকবে, সেটা জানতে চাইছেন।

ক্রিকেটাররাও আছেন এই দলে। সেটা একেবারে স্বাভাবিকও। আমাদের কাজ হলো যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করা, নিরাপত্তাব্যবস্থা ঠিক থাকলে ক্রিকেটারদের আশ্বস্ত করা।’ হিথ মিলস আরও বলছিলেন, ‘ডিকেসনের প্রতিবেদন পেতে চার-পাঁচ দিন সময় লাগবে।

সফরে আমাদের যাওয়া উচিত কি না, এ ব্যাপারে তাঁর একটা মন্তব্য থাকবে। তখন আমরা সেভাবে পরিকল্পনা করব। যদি সফর হয়, তাহলে ডিকেসন দলের সঙ্গেই থাকবেন। যদি তিনি কোনো অস্বস্তি অনুভব করেন, তাহলে দল পাকিস্তান থেকে সরাসরি ফিরে আসবে।’

এদিকে পাকিস্তানের মতো বাংলাদেশেও প্রতিনিধিদল পাঠিয়েছে নিউজিল্যান্ড। গতকাল বাংলাদেশে এসেছেন তিন সদস্যের প্রতিনিধিদল। নিউজিল্যান্ড দলের ব্যবস্থাপক, কোভিড ব্যবস্থাপক ও নিরাপত্তা ব্যবস্থাপক আছেন প্রতিনিধিদলে।

এদিকে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের পাবলিক অ্যাফেয়ার্স ম্যানেজার রিচার্ড বুক বাংলাদেশ সফরের ব্যাপারে বলেছেন, ‘আমাদের প্রতিনিধিদল এখন বাংলাদেশে আছে। প্রতিবার যেমন হয়, এবারও সেভাবেই আমরা আমাদের প্রতিনিধিদের প্রতিবেদনে লেখা পরামর্শ অনুযায়ী কাজ করব।’

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.