বাংলাদেশের ভেতর দিয়ে নতুন নৌপথ তৈরি করছে ভারত

এবার পশ্চিমবঙ্গ অঞ্চলের সঙ্গে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় এলাকাকে সংযুক্ত করতে বাংলাদেশের ভেতর দিয়ে নতুন একটি শিপিং রুট তৈরির কাজ শুরু করেছে নয়াদিল্লি। গতকাল শনিবার দেশটির বন্দর, নৌপরিবহন এবং নৌপথ মন্ত্রী সর্বানন্দ সনোয়াল নতুন এই শিপিং রুট তৈরির কথা জানিয়েছেন।

এদিকে ভারতের ইংরেজি দৈনিক ইকোনমিক টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশে চলমান নর্থইস্ট ফেস্টিভালে অংশ নিয়ে ‘ব্রহ্মপুত্র রিভার কনক্লেইভে’ বক্তৃতার সময় সর্বানন্দ সনোয়াল বলেন, ব্রহ্মপুত্র এবং বরাক নদীতে জলপথের কাজ শুরু হয়েছে। এই জলপথ তৈরির কাজ শেষ হলে আসাম এবং ভারতের উত্তর-পূর্ব এলাকা থেকে পণ্যবাহী এবং যাত্রীবাহী জাহাজ বাংলাদেশ হয়ে পশ্চিমবঙ্গের হলদিয়ার সাথে সংযুক্ত হবে।

তিনি আরও বলেন, যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে জলপথের সংস্কারের পেছনে রয়েছে পরিবহন মাধ্যমের রূপান্তরের চিন্তাধারা। সর্বানন্দ সনোয়াল বলেন, ‘জাতীয় নৌপথে (ব্রহ্মপুত্র এবং বরাক) পণ্যবাহী জাহাজ চলাচলের সুবিধার্থে পথ প্রশস্ত করার কাজ ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে। পণ্য এবং যাত্রীবাহী জাহাজ আসাম ও উত্তর-পূর্ব থেকে বাংলাদেশ হয়ে হলদিয়ার সাথে সংযুক্ত হবে। নদীর খনন কাজও ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে।’

উপকূলীয় এবং সামুদ্রিক প্রশস্ততার ফলে ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বাজারগুলো আরও উন্মুক্ত হবে উল্লেখ করে তিনি বলেছেন, আমাদের শুধুমাত্র ব্রহ্মপুত্রের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকা যাবে না। বরং আই, ধানসিরি, মানসের মতো অন্যান্য নদীর মাধ্যমে জলপথের উন্নয়ন করতে হবে। উত্তর-পূর্বাঞ্চল নিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উন্নয়নের রূপকল্পের ব্যাপারেও কথা বলেছেন সনোয়াল। তিনি বলেন, ‘আটটি রাজ্যকে একত্রিত হয়ে এই অঞ্চলের উন্নয়নে কাজ করতে হবে।’

ওই অনুষ্ঠানে ভারতের অভ্যন্তরীণ জলপথ কর্তৃপক্ষের (আইডব্লিউএআই) পরিচালক এ সিলভাকুমার দেশটির উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় জলপথের সংস্কারে গৃহীত বিভিন্ন ব্যবস্থার ওপর একটি প্রেজেন্টেশনও করেন। গত শুক্রবার তিন দিনের নর্থইস্ট ফেস্টিভালের উদ্বোধন করেন আসামের গভর্নর জগদীশ মুখি। প্রয়োজনীয় করোনা বিধি মেনে রেডিসন ব্লু হোটেলে এই অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন তিনি। সূত্র: ইকোনমিক টাইমস।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.