বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য দ্বিগুণ করার আগ্রহ তুরস্কের!

বাংলাদেশের সঙ্গে চলমান বাণিজ্য দ্বিগুণ করতে চায় তুরস্ক। সেই লক্ষ্যে দুই দেশ কাজ করছে জানিয়েছেন তুরস্কের রাষ্ট্রদূত মোস্তফা ওসমান তুরান।রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশ ও তুরস্কের মধ্যকার বর্তমান বাণিজ্যের পরিমাণ ১ বিলিয়ন (১০০ কোটি টাকা) ডলার। এ অঙ্কটা আগামী এক বছরে দ্বিগুণ করতে চায় দুই মহাদেশ বিস্তৃত দেশটি।

এরই ধারাবাহিকতায় দক্ষিণ সিটি করপোরেশন এলাকায় তুরস্ক বিনিয়োগ করতে আগ্রহী।বৃহস্পতিবার দুপুরে নগর ভবনে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপসের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতকালে তুরস্কের এ অবস্থানের কথা জানান দেশটির রাষ্ট্রদূত।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের হিসাব অনুযায়ী, তুরস্কে ৪৫ কোটি ৩৪ লাখ ৬০ হাজার ডলার মূল্যের পণ্য রপ্তানি করেছে বাংলাদেশ। আর তুরস্ক থেকে ২৩ কোটি ৩৫ লাখ ডলার মূল্যের পণ্য আমদানি করা হয়েছে।

সাক্ষাতকালে ডিএসসিসি এলাকায় আধুনিক হাসপাতাল নির্মাণের আগ্রহ প্রকাশ করেন তুরান। এ সময় মেয়র তাপস রাষ্ট্রদূতকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, হাসপাতালের নির্মাণকাজ এগিয়ে নিতে ডিএসসিসিতে নবসংযুক্ত এলাকা কামরাঙ্গীরচরে প্রয়োজনীয় জমি বরাদ্দ দেওয়া হবে।

মেয়র তাপস ও তুরস্কের রাষ্ট্রদূত ঢাকার ঐতিহ্য সংরক্ষণে পারস্পরিক সহযোগিতা বাড়ানো, সাংস্কৃতিক বিনিময় এবং তুরস্কের উল্লেখযোগ্য যে কোনো একটি শহরের সঙ্গে ডিএসসিসির ‘সিস্টার সিটি রিলেশনশিপ’ প্রতিষ্ঠাসহ নানা বিষয়ে একযোগে কাজ করার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

সাক্ষাতকালে রাষ্ট্রদূতকে তার সহকর্মীদের নিয়ে শীতকালের শুরুতে ডিএসসিসির আওতাধীন ঐতিহ্যবাহী স্থাপনাগুলো পরিদর্শনের আমন্ত্রণ জানান মেয়র তাপস। এ সময় মেয়রকে ধন্যবাদ জানিয়ে আমন্ত্রণ গ্রহণ করেন রাষ্ট্রদূত।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.