বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের লড়াইয়ে শক্তিশালী দল ঘোষণা ব্রাজিলের

দক্ষিণ আমেরিকা অঞ্চলের বিশ্বকাপ বাছাই আবারও মাঠে গড়াতে যাচ্ছে। আগামী মাসের শুরুর দিকের দুটি ম্যাচের জন্য পূর্ণ শক্তির দল ঘোষণা করেছেন ব্রাজিল। আগামী মাসে ভেনেজুয়েলা, কলম্বিয়া ও উরুগুয়ের বিপক্ষে বিশ্বকাপ বাছাইয়ের লড়াইয়ে মুখোমুখি হবে পাঁচবারের বিশ্বজয়ীরা। তার আগে গতকাল শুক্রবার ২৫ সদস্যের দল ঘোষণা করে সেলেসাওরা।

চলতি মাসে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ব্রাজিল কোচ তিতে ইংলিশ লিগে খেলা বেশ কিছু খেলোয়াড়কে দলে ডেকেও পাননি। তবে ঘোষিত দলে সেই খেলোয়াড়দেরই আবারও দলে ডেকেছেন কোচ তিতে। ডাক দিয়েও না পাওয়া খেলোয়াড়রা হলেন- অ্যালিসন, ফ্যাবিনিও, গ্যাব্রিয়েল জেসুস, এডারসন, এমারসন রয়্যাল, থিয়াগো সিলভা, ফ্রেড, ও রাফিনিয়া।

করোনাভাইরাস জনিত কারণে তাদের ক্লাব চায়নি খেলোয়াড়েরা করোনার লাল তালিকভুক্ত দেশে যাতায়াত করুন, তা হলেই যে দেশে অপেক্ষা করবে দশ দিনের কোয়ারেন্টাইন! সে অবস্থার এখনো পরিবর্তন হয়নি। তবু এই আটজনকে নিয়েই দল ঘোষণা করল ব্রাজিল। দলের সমন্বয়ক পাওলিস্তা আশা প্রকাশ করলেন, পরিস্থিতিতে পরিবর্তন আসবে শিগগিরই।

বললেন, ‘ফিফা, ইপিএল আর ইংলিশ সরকারের সঙ্গে আমাদের দারুণ আলোচনা হয়েছে। আশা করছি আগামী সপ্তাহে একটা সমাধান হবেই।’ আলোচনা অবশ্য আরেকটা বাকি ব্রাজিলের। নিজেদের স্বাস্থ্য প্রশাসনের সঙ্গে। চলতি মাসে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ব্রাজিলের ম্যাচটাই যে বাতিল হয়ে গিয়েছিল তাদের হস্তক্ষেপে। তেমন কিছু এবারও এড়াতে চাইলে আলোচনায় বসতেই হবে দুই পক্ষকে।

আগামী ৭ অক্টোবর ভেনেজুয়েলার আতিথ্য নেবে ব্রাজিল। এর তিন দিন পর আবারও তাদের এক ‘অ্যাওয়ে’ ম্যাচ। সেদিন তারা খেলবে কলম্বিয়ার মাঠে। অবশেষে ১৪ অক্টোবর ঘরের মাঠে ব্রাজিল খেলবে উরুগুয়ের বিপক্ষে। বাছাইপর্বে ৮ ম্যাচ খেলে ২৪ পয়েন্ট অর্জন করেছে ব্রাজিল। আর্জেন্টিনা আছে তাদের চেয়ে ছয় পয়েন্ট পেছনে।

ব্রাজিল দল: গোলরক্ষক: অ্যালিসন (লিভারপুল), ওয়েভেরটন (পালমেইরাস), এডারসন (ম্যানচেস্টার সিটি), ডিফেন্ডার: দানিলো (জুভেন্তাস), গিলেরমো আরানা (আতলেতিকো মিনেইরো), আলেক্স সান্দ্রো (ইউভেন্তুস), এমারসন রয়াল (টটেনহ্যাম হটস্পার), এডারর মিলিতাও (রিয়াল মাদ্রিদ), লুকাস ভেরিসিমো (বেনফিকা), মার্কিনিয়োস (পিএসজি), থিয়াগো সিলভা (চেলসি)

মিডফিল্ডার: ক্যাসেমিরো (রিয়াল মাদ্রিদ), ফ্যাবিনিয়ো (লিভারপুল), ফ্রেড (ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড), এদেনিলসন (স্পোর্ত ক্লাব ইন্তারনাসিওনাল), জেরসন (মার্সেই), লুকাস পাকেতা (অলিম্পিক লিওঁ), এভারটন রিবেইরো (ফ্লামেঙ্গো), ফরোয়ার্ড: নেইমার (পিএসজি), আন্তোনি (আয়াক্স), রাফিনিয়া (লিডস ইউনাইটেড), ভিনিসিয়াস জুনিয়র (রিয়াল মাদ্রিদ), গাব্রিয়েল জেসুস (ম্যানচেস্টার সিটি), মাথেউস কুনিয়া (হের্থা বার্লিন), গাবি (ফ্লামেঙ্গো)।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.