ব্যালন ডি’অর: মেসি নয়, লেভা ফেভারিট

আগামী ২৯ নভেম্বর ঘোষণা করা হবে এবারের ব্যালন ডি’অর। কে জিতবে ফ্রান্স ফুটবল ম্যাগাজিনের জনপ্রিয় এই পুরস্কার, বিষয়টি নিয়ে ভক্ত-সমর্থক এবং বিশ্লেষকরা নিয়মিত নিজেদের মতামত দিচ্ছেন। এদের বেশিরভাগই এগিয়ে রাখছেন লিওনেল মেসিকে। তবে ব্রাজিলের কিংবদন্তি খেলোয়াড় রিভালদো মনে করেন, এবারের ব্যালন ডি’অরের জন্য ফেভারিট রবার্তো লেভানডফস্কি।

গত মৌসুমে দুর্দান্ত ফর্মে ছিলেন লেভা। মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে সেবার ব্যালন ডি’অর দেয়নি ফ্রান্স ফুটবল ম্যাগাজিন। করোনা বাধা না দিলে সম্মানজনক পুরস্কারটি জেতার দৌড়ে সন্দেহাতীতভাবে এগিয়ে থাকতেন বায়ার্ন মিউনিখের এই পোলিশ স্ট্রাইকার।

অন্যদিকে, গত ১১ জুলাই ঐতিহাসিক মারাকানা স্টেডিয়ামে স্বাগতিক ব্রাজিলকে হারিয়ে কোপা আমেরকিার শিরোপা জেতে আর্জেন্টিনা। যেখানে সবচেয়ে বড় ভূমিকা ছিল মেসির। নিজে চার গোল করার পাশাপাশি বেশ কয়েকটি অ্যাসিস্ট করেছেন প্যারিস সেন্ট জার্মেই, পিএসজির ফরোয়ার্ড। এজন্য ভক্তদের আশা, ২০১৯ সালের পর এবারও মেসির হাতেই উঠবে ব্যালন ডি’অর।

লেভাকে ফেভারিট বললেও মেসি এবং মোহাম্মদ সালাহকে ব্যালন ডি’অরের জন্য যোগ্য মনে হয় রিভালদোর কাছে। গণমাধ্যমকে সাবেক তারকা ফরোয়ার্ড বলেন, ‘লেভানডফস্কি এবারের ব্যালন ডি’অরের জন্য ফেভারিট। সে যোগ্য হিসেবেই এটা জিতবে। মেসি ও সালাহরাও যোগ্য।’

২০১৯-২০ মৌসুমে দ্বিতীয় দল হিসেবে হেক্সাজয়ের কীর্তি গড়েছে বায়ার্ন মিউনিখ। এই জয়ে সামনে থেকে নেতৃত্ব দেন লেভা। যোগ দেওয়ার পর থেকেই জার্মান বুন্দেসলিগার ক্লাবটির হৃৎপিণ্ড হয়ে উঠেছেন তিনি।

লেভার প্রশংসা করতে গিয়ে রিভালদো বলেন, ‘লেভা একজন দুর্দান্ত খেলোয়াড়। দারুণ সফল গোলস্কোরার। বিষয়টা অন্য ক্লাবের সঙ্গে বায়ার্ন মিউনিখের পার্থক্য গড়ে দিচ্ছে। দিনকয়েক আগে সে বেনফিকার বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেছে। শুধু তাই নয়, সতীর্থকে দিয়ে একটি গোলও করিয়েছে।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.