বড় জয়ে শীর্ষে রিয়াল মাদ্রিদ

বড় জয় পেয়েছে জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ। গ্রানাডাকে ৪-১ গোলে হারিয়েছে লস ব্লাঙ্কোসরা।গ্রানাডার মাঠে অনুষ্ঠিত ম্যাচে শুরু থেকেই দাপুটে ছিল রিয়াল মাদ্রিদ। ১৯ মিনিটে মার্কো আসেন্সিয়োর গোলে লিড নেয় অ্যানচেলোত্তির দল। ২৫ মিনিটে নাচো ফার্নান্দেসের গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করে মাদ্রিদের জায়ান্টরা।

৩৪ মিনিটে এক গোল শোধ দেয় গ্রানাডা। স্কোর শিটে নাম তোলেন সোয়ারেজ। ৫৬ মিনিটে আবারও গোলের দেখা পায় রিয়াল। এবার গোলদাতা ফরোয়ার্ড ভিনিসিয়াস জুনিয়র। ৭৬ মিনিটে রিয়ালের ৪-১ গোলের জয় নিশ্চিত করেন ফ্রিল্যান্ড মেন্ডি। এই জয়ে এক ম্যাচ কম খেলে রিয়াল সোসিয়েদাদকে পেছনে ফেলে শীর্ষ স্থান দখল করেছে লস ব্লাঙ্কোসরা।

বড় জয় পেয়েছে ম্যানসিটি, অন্য ম্যাচে লিডসকে হারিয়েছে টটেনহ্যাম জয় পেয়েছে চ্যাম্পিয়ন ম্যানসিটি। সিটিজেনরা ৩-০ গোলে হারিয়েছে এভারটনকে। আরেক ম্যাচে টটেনহ্যাম ২-১ গোলে হারিয়েছে লিডস ইউনাইটেডকে।ঘরের মাঠ ইতিহাদ স্টেডিয়ামে এভারটনকে আতিথ্য দেয় ম্যানচেস্টার সিটি।

৪৪ মিনিটে জাও ক্যানসেলোর দুর্দান্ত অ্যাসিস্টে সিটিজেনদের লিড এনে দেন রাহিম স্টারলিং। ৫৫ মিনিটে দূরপাল্লার অনবদ্য শটে সিটির ব্যবধান দ্বিগুণ করেন রড্রি। ৮৬ মিনিটে আবারও গোলের দেখা পায় গার্দিওলার দল। এবার স্কোর শিটে নাম তোলেন বার্নাডো সিলভা। এই জয়ে ২৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দুই নম্বরে ম্যানসিটি।

আরেক ম্যাচে ঘরের মাঠে লিডসের বিপক্ষে প্রথমার্ধেই গোল খেয়ে বসে টটেনহ্যাম। ৪৪ মিনিটে জেমসের গোলে এগিয়ে যায় বিয়েলসার দল। ৫৮ মিনিটে হয়বার্গের গোলে সমতায় ফেরে টটেনহ্যাম। ৬৯ মিনিটে স্পার্সদের জয় নিশ্চিত করেন রাইট ব্যাক রুগিলন।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.