ভবিষ্যতে যদি সমাজে ডিভোর্স অ্যাওয়ার্ড চালু করা হয়, সেটা অপূর্ব-নাজিয়ার প্রাপ্য:-আনিস

বিনোদন জগতে প্রেম বিয়ে বিচ্ছেদ যেন নতুন কোন ব্যাপার নয় প্রতিনিয়ত এসব বিষয়ের সাথে সাধারণ মানুষ অভ্যস্ত হয়ে গিয়েছে তবে মানুষের সবথেকে যেটি বেশি আক্ষেপের বিষয় সেটি হলো তারা যাকেই ভাবে তাদের আইডল এবং যাদেরকে তারা সুখী দম্পতি হিসেবে স্বীকৃতি দেয় তারাই তাদের এই ধারণাকে ভুল প্রমাণিত করে এর আগে যেমন একই ঘ’টনা ঘটেছে তাহসান-মিথিলার ক্ষেত্রে অথবা অন্যান্য যারা আছে তাদের ক্ষেত্রে।

তারকাদের এই বিবাহ ব’ন্ধন যেন সাময়িক একটি খেলা মাত্র অবশ্য এ বিষয়ে নিয়ে নানান প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন নানান মানুষ সাম্প্রতিক সময়ে আবারও অপূর্ব এবং অদিতির বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে আলোচনা এসেছে নানান দিক। কারো বিবাহ বিচ্ছেদ নিয়ে অন্যদের মন্তব্য করা খুবই নিষ্ঠুরতা মনে হয় আমা’র কাছে। তৃতীয় পক্ষের মোটেও জানার কথা নয়, ঠিক কোন কারণটিতে দুটি মানুষকে এমন একটি কঠিন সিদ্ধা’ন্ত নিতে হয়।

সন্তান, পরিবার এবং সমাজের চাপকে উপেক্ষা করে বিচ্ছেদের সিদ্ধা’ন্ত নেওয়া ছেলেখেলা নয়। অভিনেতা অপূর্বর বিবাহ বিচ্ছেদের ঘ’টনা নিয়ে নানান খবর দেখছিলাম। দেখছিলাম সোশ্যাল মিডিয়ায় নানা মন্তব্য। একজন এই নিয়ে তার লেখা স্ট্যাটাস আমাকে ইনবক্সে শেয়ার করে জানতে চাইলেন, এই বিচ্ছেদের ঘ’টনা খবর হতে পারে কিনা?

সাংবাদিকতার ছাত্র এবং শিক্ষক হিসেবে আমা’র মতামত কী? আমি বলেছি, অবশ্যই খবর। কারণ অপূর্বতো যদু-মধু না। ছোটপর্দার একজন বড় তারকা। যাক, এই নিয়ে আমি অপূর্ব এবং তার স্ত্রীর দুই মিডিয়ায় দেওয়া আলাদা সাক্ষাৎকার পড়লাম। তারা পরস্পরের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ রেখে কথা বলেছেন, সন্তানের কথা মাথায় রেখেছেন, কিন্তু বিচ্ছেদের আসল কারণ কী কেউ বলেননি। না বলাই ভালো।

কারণ কোন কেমিস্ট্রির অঘটনে এই বিচ্ছেদ আসে সেটা তারাই ভালো জা’নেন, অন্যকে বোঝানোর দরকার নেই, বুঝবেও না। তবে দুইজনের সাক্ষাৎকার প’ড়ে আমি এই সিদ্ধা’ন্তে উপনীত হয়েছি যে, ভবিষ্যতে যদি সমাজে ডিভোর্স অ্যাওয়ার্ড চালু করা হয়, সেটা সাবেক অপূর্ব দম্পতির প্রাপ্য।

এতো শ্রদ্ধা-ভালোবাসা রেখে পৃথিবীতে আর কোনো দম্পতি বিচ্ছেদ ঘটিয়েছে কিনা আমা’র জানা নেই চলমান করণা ভা’ইরাসের লকডাউনের এর মধ্যেই ভে’ঙে গিয়েছে অপূর্বের সংসার এমন খবরে ছয়লাব বাংলাদেশের গণমাধ্যমগুলো এবং সোশ্যাল মিডিয়াতে ব্যা’পকভাবে আলোচনার কে’ন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠেছে এই বিষয়টি।

বিষয়টিকে অনেকেই নেতিবাচক হিসেবে দেখছেন এবং এই ঘ’টনার পিছনে কি বিশেষ রহস্য থাকতে পারে সে বিষয়ে অনেকে উদঘাটন ক’রতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন আবার অনেকে মনে করছেন তৃতীয় কোনো ব্যক্তির নিশ্চয়ই হাত রয়েছে এমন ঘ’টনা ঘটানোর জন্য তবে তৃতীয় ব্যক্তির এই বিষয়টি নিয়ে দুজনের কেউ মন্তব্য না করলেও এটি আসলে প্রধান স’মস্যা হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *