ভাঙা পা নিয়েও সেবা দিচ্ছেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার

ভোলার লালমোহন সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রাসেলুর রহমান। তিনি গত শুক্রবার বাসার সিঁড়ি দিয়ে নামতে গিয়ে পায়ে মা’রাত্ম’কভাবে আ’ঘা’তপ্রাপ্ত হন।এরপর চিকিৎসার জন্য তাকে ডাক্তারের কাছে নিলে বাম পায়ে ফ্র্যা’কচারের কারণে প্লা’স্টার করা হয়। পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাসেলুর রহমানকে ১৪ দিন বেড রেস্টে থাকার পরামর্শ দেন চিকিৎসক।তবে অসুস্থ শরীর নিয়েও তিনি নিয়মিত অফিসের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।

প্রতিদিন লালমোহন সার্কেল অফিসে বিভিন্ন ধরনের সেবা নিতে তার কাছে অর্ধশতাধিক মানুষ আসেন। সোমবারও অসুস্থ শরীরে মানুষের বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে কথা বলতে দেখা গেছে দায়িত্ববান পুলিশ কর্মকর্তা মো. রাসেলুর রহমানকে। ডাক্তারের পরামর্শের পরেও অসুস্থ শরীরে অফিসের কার্যক্রম পরিচালনার ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, অসুস্থতার কারণে ডাক্তার ১৪ দিন সম্পূর্ণ রেস্টে থাকতে বলেছে।

তবে তা পারছি না। লালমোহন ও বোরহানউদ্দিন দুই উপজেলার দূর-দূরান্ত থেকে অনেক মানুষ আসছেন তাদের সমস্যা নিয়ে। তাদের দু’র্ভোগ লাঘবে মানবিক দিক বিবেচনা করে নিজে অসুস্থ হওয়ার পরও অফিসের কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছি। কেউ যাতে আমার কারণে ভোগান্তির শিকার না হন সবসময় সেই চেষ্টাই করে যাচ্ছি।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.