মনে হলো টিম ম্যানেজমেন্টই তামিমকে চায়নি: ফাহিম

কেমন হলো টাইগারদের বিশ্বকাপ স্কোয়াড? দল ঘোষণা হয়েছে এক সপ্তাহর কিছু বেশি আগে। দলে নেই কোনো চমক। আর দল গঠন ও ক্রিকেটার নির্বাচন নিয়েও সে অর্থে তেমন হৈ চৈ নেই। টিম ম্যানেজমেন্ট আর নির্বাচকদের মতিগতি দেখে পরিষ্কার বোঝা গেছে, তারা আগে থেকেই ঠিক করে রেখেছিলেন, কাদের নিয়ে দল সাজাবেন।

তামিম ইকবাল নিজে থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন, তাই তার না থাকা নিয়ে তেমন আলোচনার অবকাশ ছিল না। তবে আজ (শনিবার) সন্ধ্যার পর জাগো নিউজের সাথে একান্ত আলাপে টাইগারদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দল নিয়ে কথা বলতে গিয়ে রীতিমত বোমা ফাটানো মন্তব্য করেছেন নাজমুল আবেদিন ফাহিম।

দেশের এ নামি ক্রিকেট প্রশিক্ষক, বিশ্লেষক, বোদ্ধা ও বিকেএসপির প্রধান পরামর্শক মনে করেন, তামিমকে দলে রাখার ইচ্ছেই ছিল না টিম ম্যানেজমেন্টের। তাই তাকে ফেরানোর অনুরোধ না জানিয়ে না খেলার ঘোষণাকে স্বাগত জানানো হয়েছে। ফাহিম পরিষ্কার বলে দিয়েছেন, দলে কিছু ক্রিকেটার সুযোগ পেয়েছেন, যারা আসলে ফর্মে নেই।

তার মতে, দল গঠনের আগে সাম্প্রতিক ফর্মটা খুব ভালো করে বিবেচনায় আনা উচিত ছিল। নাজমুল আবেদিন ফাহিমের উপলব্ধি, সব বিচার বিবেচনায় তামিমকে দলে রাখাটা ছিল একান্তই জরুরি। তিনি মনে করেন, তামিমের পরীক্ষিত সামর্থ্য ও অভিজ্ঞতা আমলে আনা উচিত ছিল। তামিম তো নিজ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।

তাকে দলে রাখা না রাখার কথা আসছে কেন? এমন প্রশ্নে ফাহিমের উত্তর, ‘বারবার শুনে আসছিলাম, বিশ্রামে থাকলেও তামিম কনফার্ম প্লেয়ার। তার বিশ্বকাপ দলে থাকা নিশ্চিত। কিন্তু যখনই সে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিলো, তখনই দেখলাম বাতাস বদলে গেল। কোথাও কোনো জায়গা থেকে দেখলাম না তাকে ফেরানোর চেষ্টা করা হলো।

মনে হলো না তামিম খুব বড় পছন্দ ছিল।’ তিনি যোগ করেন, ‘মনে হয়েছে টিম ম্যানেজমেন্ট যা চেয়েছে, তা পেয়েছে। তামিম নিজ থেকে সরে দাঁড়ানোয় মনে হয় তাদের (টিম ম্যানেজমেন্ট) ইচ্ছেরই প্রতিফলন ঘটেছে)।’ দেশের ক্রিকেটার গড়ার সূতিকাগার বিকেএসপির এ কারিগরের শেষ কথা হলো, ‘দল নিয়ে আসলে তেমন কথা বলার আর সুযোগ নেই। ফর্ম থাকুক বা না থাকুক, এদের নিয়েই খেলতে হবে।’

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.