মারা গেলেন ইসলামি সংগীত শিল্পী মাহফুজুল আলম

মারা গেলেন ইসলামি সংগীত শিল্পী মাহফুজুল আলম

দেশের জনপ্রিয় ইসলামি সংগীত শিল্পী মাহফুজুল আলম ইন্তেকাল করেছেন। কয়েকদিন ধরে জ্বরে ভুগছিলেন। আজ ২০ জুলাই সকালে জ্বরের মাত্রা বেশি হলে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই তিনি ইন্তেকাল করেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।
কলরব শিল্পীগোষ্ঠীর শিল্পী মাহফুজুল আলম একজন দক্ষ সাউন্ড ডিজাইনার ছিলেন।

কলরবের অসংখ্য নাশিদের সাউন্ড ডিজাইনারের কাজ তিনি করেছেন। ব্যক্তিজীবনে অবিবাহিত মাহফুজুল আলমের মৃত্যুতে সোশ্যাল মিডিয়ায় শোকের ছায়া নেমে আসে। মাহফুজুল আলম ইসলামী সংগীত অঙ্গনের এক পরিচিত নাম। ইসলামী সংগীত নিয়ে কাজ করতেন কলরবে। হঠাৎ কয়েক দিন ধরে জ্বরে ভুগছিলেন। ২০ জুলাই সকালে জ্বরের মাত্রা বেশি হলে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই তিনি ইন্তেকাল করেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

ভক্তরা অনেকেই বলছেন করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন তিনি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল আনুমানিক ২৩ বছর। ২০ জুলাই সকাল সাড়ে ৮টার দিকে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তার মৃত্যুতে শোকাহত কলরব শিল্পীগোষ্ঠীসহ অগণিত ইসলামী সংগীতপ্রেমিক ও ভক্ত।

মাহফুজুল আলম কলরব শিল্পীগোষ্ঠীর শিল্পী ছাড়াও একজন দক্ষ সাউন্ড ডিজাইনার ছিলেন। কলরবের অসংখ্য নাশিদের সাউন্ড ডিজাইনের কাজ তার হাতেই হয়েছিল। তার সুললিত কণ্ঠে ‘প্রথমে আল্লাহ আল্লাহ’, ‘আমি চাই না বাঁচতে তুমি ছাড়া’, ‘আস্তাগফিরুল্লাহ’সহ অসংখ্য নাশিদ বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করে। মাত্র ১০ দিন আগে তাঁর নতুন ইসলামিক গজল ক্লান্ত হৃদয় প্রকাশ পায়।

ব্যক্তিজীবনে মাহফুজুল আলম অবিবাহিত ছিলেন। তার এমন মৃত্যুতে সোশ্যাল মিডিয়ায় শোকের ছায়া নেমে আসে। নেটিজেনরা বলছেন, আল্লাহ তাকে জান্নাতের উচ্চ মাকাম দান করুক। আমিন।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.