মালয়েশিয়ায় বড় শাস্তির মুখে ৪ বাংলাদেশি

মালয়েশিয়ায় এক বাংলাদেশি প্রবাসীকে অ”প’হরণ করে মু’ক্তিপণ দাবির দায়ে ৪ বাংলাদেশি ও একজন মালয়েশিয়ান নারী এখন আদালতের বিচারে মৃ’ত্যুদ’ণ্ড বা যা’বজ্জীবন কা’রাদণ্ডা’দেশের মুখোমুখি হয়েছেন। অপ’হরণ করা ওই বাংলাদেশিকে বাঁচাতে হলে ৫০ হাজার রিংগিত যা বাংলাদেশি ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করেছিল স্বজনের কাছে অপ’হরণ’কারীরা।

জানা যায়, ৩০ আগস্ট রাতে জালান দামাই মেওয়াহ ১ এর পাসার মিনি মার্কেটের (মুদির দোকান) সামনে থেকে বাংলাদেশি সোহেল রানা (৩৯) নামে এক যুবককে অ’পহর’ণ করে ওই ৫ অপ’হরণ’কারী। অভি’যোগ পেয়ে স্থানীয় পুলিশ কাজাং টেকনোলজি শহরের একটি বাড়ি থেকে অ’পহৃত সোহেল রানাকে উ’দ্ধার করে।

অপ’হরণ’কারী ৫ জন হলেন- বাংলাদেশি নাগরিক রায়হান হোসেন (২৮), সোরাফ মিয়া (৩৩), নুসরাত জাহান বিপাশা (২৬), মো. জসিম (৩২) ও তার মালয়েশিয়ান স্ত্রী ফরিদাহ জিয়া রমেশ(২৭)। তাদের বিরু’দ্ধে মালয়েশিয়ার অ’পহরণ বি’রোধী আইন ১৯৬১ এর ৩য় ধারার (ক) উপধারায় স্থানীয় পুলিশ অ’ভিযোগ দায়ের করেছেন।

এ ধারায় তাদের অ’পরাধ প্রমাণিত হলে আদালত মৃ’ত্যুদ’ণ্ড কিংবা যাব’জ্জীবন কা’রাদ’ণ্ডাদেশ দিতে পারেন এবং সঙ্গে দোররা মা’রার আদেশও হতে পারে বলে আদালত সূত্রে জানা গেছে। বিচারক নুরুল হুসনাহ আমরান এর বেঞ্চে মাম’লাটি পরিচালনা করা হচ্ছে। আ’সামি রায়হান ও জসিমের পক্ষের আইনজীবী ছিলেন মিস্টার তান চেং ইয়েং এবং অন্য তিন আ’সামির পক্ষে আদালতে কোনো আইনজীবীই ছিলেন না।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.