মেসির সঙ্গে প্রতারণা করেছে বার্সা

লিওনেল মেসির সঙ্গে প্রতারণা করেছে বার্সেলোনা ক্লাব কর্তৃপক্ষ। একইসঙ্গে আর্জেন্টাইন মহাতারকাকে অবহেলাও করেছে তারা। এমনটাই মনে করেন স্প্যানিশ ক্লাব রায়ো ভায়োকানোর সাবেক ম্যানেজার পাকো জেমেজ। তিনি মনে করেন, বার্সার অবশ্যই উচিত ছিল মেসির সিদ্ধান্তকে সম্মান জানানো।

৬ বারের ব্যালন ডি অর জয়ী তারকা গেল ৪ সেপ্টেম্বর জানান, আরো এক মৌসুম ন্যু ক্যাম্পে থাকছেন তিনি। এর সপ্তাহ দুয়েক আগে ক্লাব ছাড়ার ঘোষণা দিলেও বার্সা জানিয়ে দেয়, রিলিজ ক্লজের পুরো টাকা না পেলে মেসিকে ছাড়বেনা তারা। অনেকটা বাধ্য হয়েই তাই থাকার সিদ্ধান্ত নিতে হয় আর্জেন্টাইন সুপারস্টারকে।

ফলে চুক্তি অনুযায়ী আগামী এক মৌসুম ক্লাবে থাকার কথা জানিয়েছেন মেসি। যদিও জেমেজ মনে করেন, তাকে যেতে দেয়াই উচিত ছিল বার্সার। তিনি বলেন, মেসি স্পেনে থাকছে এটা দারুণ খবর। বার্সার জন্যও সুসংবাদ তো অবশ্যই। তবে মেসি এখানে বাধ্য হয়ে থাকবে এটি আমি মানতে পারছি না। সে যদি তার খুশিমতো খেলতে না পারে তাহলে মুশকিলই হবে।

জেমেজ বলেন, মেসি থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কারণ তাকে বাধ্য করা হয়েছে। সে সাক্ষাৎকারে ক্লাব এবং সভাপতির বিষয়ে যা বলেছে সেসব যদি সত্যি হয়ে থাকে তাহলে আমি মনে করি তার সঙ্গে প্রতারণা করেছে ক্লাবটি। একইসঙ্গে তাকে অবহেলাও করা হয়েছে। এটা কোনোভাবেই ভালো লক্ষণ নয়। আমি যদি বার্সার সভাপতি হতাম তাহলে অবশ্যই মেসিকে যেতে দিতাম।

তবে বার্সার নবনিযুক্ত কোচ রোনাল্ড কোম্যানকে সমর্থন দিচ্ছেন জেমেজ। মেসি-বার্সা ইস্যুর প্রভাব তার কাজে পড়বেনা বলেও প্রত্যাশা করেন তিনি। জেমেজ বলেন, মেসির মতো ফুটবলারকে ছেড়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়াও কঠিন, এটা আমিও জানি।

তবে একজন কোচ হিসেবে আমি অবশ্যই চাইবোনা দলের সেরা খেলোয়াড়টা ক্লাবে অখুশি থাকুক। কেবল মেসি থাকলেই যে বার্সার সব সমস্যার সমাধান হয়ে যাবেনা, সেটিও সাফ জানিয়ে দিলেন সাবেক এই স্প্যানিশ ফুটবল সংগঠক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *