ম্যাচটি হাতছাড়া করো না, মুস্তাফিজকে বলেছিলেন পরাগ

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ৩২তম ম্যাচে রাজস্থান রয়্যালসের বিপক্ষে জয়ের জন্য শেষ দুই ওভারে পাঞ্জাব কিংসের প্রয়োজন ছিল ৮ রান। পাঞ্জাবের হাতে আট উইকেট থাকায় তাদের আটকানো বেশ কঠিন ছিল রাজস্থানের বোলারদের জন্য। শেষ পর্যন্ত সেই দুই ওভারে অসাধ্য কাজটিই করে দেখালেন মুস্তাফিজুর রহমান ও কার্তিক তিয়াগি। ম্যাচ শেষে জানা গেল, সতীর্থ রায়ান পরাগের অনুরোধ বেশ ভালোভাবেই রাখেন মুস্তাফিজ।

ম্যাচটিতে নিজের প্রথম তিন ওভারে ২৬ রান দিয়ে ফেলেছিলেন মুস্তাফিজ। তবে ১৯তম ওভারে এসে অসাধারণ বোলিংয়ে মাত্র ৪ রান দিয়ে জয়ের আশা বাঁচিয়ে রাখেন বাহাতি ‘কাটার মাস্টার’। পরে শেষ ওভারে অবিশ্বাস্য স্পেলে মাত্র এক রানে দুই উইকেট তুলে নিয়ে রাজস্থানকে জয় এনে দেন তিয়াগি।

মুস্তাফিজের করা ১৯তম ওভারের সময় মিড-অফে ফিল্ডিং করছিলেন পরাগ। সে সময় যে কোনো মূল্যে মুস্তাফিজকে ম্যাচটি বাঁচিয়ে রাখতে বলেছিলেন তিনি। ম্যাচ জয়ের পর মুস্তাফিজ ও তিয়াগি এই দুজনকেই প্রশংসায় ভাসান পরাগ।মুস্তফিজের সঙ্গে কথোপকথন প্রসঙ্গে পরাগ বলেন, ‘১৯তম ওভারে আমি মিড-অফে ফিল্ডিং করছিলাম এবং মুস্তাফিজুরকে বলেছিলাম এই ওভারে ম্যাচটি হাতছাড়া হতে দিও না।

শেষ ওভারে তিয়াগির বোলিংয়ে আমাদের একটি সুযোগ রয়েছে। শেষ ২ ওভারে ৮ রান প্রতিহত করা এক কথায় অবিশ্বাস্য- ওরা দুজনই অসাধারণ ছিল।’ সবশেষে স্বদেশী পেসার তিয়াগি বন্দনায় মাতেন দলের টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান পরাগ। তিয়াগির করা স্পেলটি তার ক্রিকেট ক্যারিয়ারে দেখা সেরা ওভার বলে দাবি করেন তিনি।

ভবিষ্যতে এমন বোলিং জাদুতে তিয়াগি আরো অনেক ম্যাচ জেতাবেন, এমনটাই প্রত্যাশা ১৯ বছর বয়সী পরাগের। পরাগ আরও বলেন, ‘আমি মনে করি এটা আমার ক্রিকেট ক্যারিয়ারে দেখা এক নম্বর বোলিং স্পেল ছিল। কিন্তু তারপর আমি আশা করি সে তিয়াগি) বাকি ম্যাচগুলোতে এমনটি করে দেখাবে এবং আমাদের আরো ম্যাচ জেতাবে।’

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.